Space For Advertisement

অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সংযোজনে আত্মীয়দের পরিধি বাড়ছে, মিথ্যা তথ্য দিলে জেল

অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সংযোজনে আত্মীয়দের পরিধি বাড়ছে, মিথ্যা তথ্য দিলে জেল

ঢাকা, সোমবার, ১৭ জুলাই ২০১৭ (স্টাফ রিপোর্টার) : আত্মীয়ের সংজ্ঞা পরিবর্তন করে অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ দেওয়া-নেওয়ার ক্ষেত্রে অনুমোদিত রক্তসম্পর্কিতদের পরিধি বাড়িয়ে ‘মানবদেহে অঙ্গ-প্রতঙ্গ সংযোজন (সংশোধন) আইন- ২০১৭’ এর খসড়ায় চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়।  সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. আশরাফ শামীম সাংবাদিকদের বলেন, নতুন আইন অনুযায়ী, আপন নানা, নানী, দাদা, দাদী, নাতি, নাতনী, চাচাতো-মামাতো-ফুফাতো-খালাতো ভাই বা বোনরাও রক্তসম্পর্কিত নিকটাত্মীয় হিসেবে অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ দান ও গ্রহণ করতে পারবেন। তিনি বলেন, ‘আগের আইনে নিকট আত্মীয় বলতে ছিল পুত্র-কন্যা, পিতা-মাতা, ভাই-বোন, ও রক্তের সম্পর্কের আপন চাচা, ফুফু, মামা, খালা ও স্বামী-স্ত্রী। নতুন আইনে নিকট আত্মীয়ের সংজ্ঞা সম্প্রসারণ করা হয়েছে।  আশরাফ শামীম আরও বলেন, এক্ষেত্রে নিকট আত্মীয়ের পরিচয়ে মিথ্যা তথ্য দিলে তাকে দুই বছরের কারাদণ্ড ও পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা এবং আইনের অন্যান্য যেকোনো বিধি লঙ্ঘন করলে ৩ বছরের কারাদণ্ড ও ১০ লাখ জরিমানা বা উভয় দণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। এছাড়া কোন হাসপাতাল সরকারের অনুমতি ছাড়া মানবদেহে অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সংযোজন করতে পারবে না বলেও সাংবাদিকদের জানান আশরাফ শামীম। তবে তিনি এও বলেন, সরকারি হাসপাতালে যেখানে বিশেষায়িত ইউনিট আছে সেখানে এ ধরণের অনুমতির প্রয়োজন নেই।


সংশ্লিষ্ট আরও খবর

সর্বশেষ খবর

Today's Visitor