Space For Advertisement

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় : হল খুলেই ক্লাস-পরীক্ষা শুরু, বিপাকে শিক্ষার্থীরা

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় : হল খুলেই ক্লাস-পরীক্ষা শুরু, বিপাকে শিক্ষার্থীরা

ঢাকা, শনিবার, ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ (নিজস্ব প্রতিনিধি) : ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ঈদুল আজহার ছুটি শেষে আবাসিক হল খুলেই ক্লাস-পরীক্ষা শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে। শনিবার সকাল ৯টায় হল খোলার পাশাপাশি ক্লাস-পরীক্ষাও শুরু হয়েছে। একই সময়ে হল খুলে ক্লাস-পরীক্ষা শুরু করায় বিপাকে পড়েছেন শিক্ষার্থীরা।   জানা যায়, গত ২৪ আগস্ট ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় পবিত্র ঈদুল আজহার ছুটি শুরু হয়। ছুটি শেষে আজ শনিবার সকাল ৯টায় আবাসিক হলসমূহ খুলে দিয়েছে প্রশাসন। একই সময়ে সকল বিভাগে রুটিনমাফিক ক্লাস-পরীক্ষাসহ প্রশাসনিক কার্যক্রম শুরু হয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল বিভাগে রুটিনমাফিক ক্লাস হচ্ছে। এ ছাড়াও একাধিক বিভাগে দুপুর ১টা থেকে চূড়ান্ত পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। অনেক বিভাগে টিউটোরিয়ালের পরীক্ষারও নির্ধারিত তারিখ আজ। তাই হল খোলার নির্দিষ্ট সময়ে হলে উঠে আবার ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নেওয়াটা অসম্ভব বলে মনে করছেন শিক্ষার্থীরা।   এ বিষয়ে সাদ্দাম হোসেন হলের শিক্ষার্থী তাসনিম আকাশ বলেন, 'এভাবে ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নেওয়াটা অসম্ভব। প্রশাসনের এ ধরনের সিদ্ধান্ত বোকামি। রাতে জার্নি করে এখন ক্লাস করাটা কিভাবে সম্ভব? যেকোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে প্রশাসনের শিক্ষার্থীদের কথা ভাবা উচিত। ' বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের এক শিক্ষার্থী বলেন, 'আজ হল খুলেই আগামীকালই আমাদের চূড়ান্ত পরীক্ষা। কাল রাতে এসে বন্ধুর মেসে উঠেছি। পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য কোনো সময় পেলাম না। প্রশাসন এবং বিভাগের এমন হঠকারী সিদ্ধান্তে আমাদের প্রতিনিয়ত বিপাকে পড়তে হয়। '  হল খোলার সাথে সাথেই ক্লাস-পরীক্ষা শুরুর এমন সিদ্ধান্ত 'অপরিপক্ক' বলে মনে করছেন শিক্ষকরা। এমন সিদ্ধান্তে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে বলে মনে করেন তারা। তবে বিগত সময়ে ক্লাস-পরীক্ষার আগের দিন হলগুলো খুলে দেওয়া হতো বলে জানা গেছে। এদিকে এমন সিদ্ধান্তর দায় নিতে চাচ্ছে না বিশ্ববিদ্যালয় প্রভোস্ট কাউন্সিল। প্রভোস্ট কাউন্সিলের সভাপতি ও শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান বলেন, 'ক্যালেন্ডার অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে আমারা হল খোলার ব্যাপারে সুপারিশ করেছি। প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আজ ৯টায় হল খোলা হয়েছে। ' উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, 'বিষয়টি আমিও আবগত হয়েছি। আশা করছি খুব বড় সমস্যা হবে না। এটা প্রভোস্ট কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত ছিল। আগামীতে সিদ্ধান্তের আগেই বিষয়গুলো নিয়ে আমরা কথা বলব। ' এ ছাড়া যাদি কোনো শিক্ষার্থীর পরীক্ষা দিতে সমস্যা হয় তাহলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে আবগত করলে বিষয়টি তারা বিবেচনা করবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।


সংশ্লিষ্ট আরও খবর

সর্বশেষ খবর

Today's Visitor