Space For Advertisement

নেইমারের পিএসজিকে নাচিয়ে দুর্দান্ত জয় বায়ার্নের

নেইমারের পিএসজিকে নাচিয়ে দুর্দান্ত জয় বায়ার্নের

ঢাকা, বুধবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭ (স্পোর্টস ডেস্ক) : দুর্দান্তভাবে ছুটে চলছিল প্যারিস সেন্ট জার্মেইন (পিএসজি)। কোনোভাবেই হারের তেতো স্বাদ নিচ্ছিল না দলটি। তবে পরপর দুই ম্যাচে হেরে জয়রথ থামল দ্য পারিসিয়ানদের। গত ম্যাচে ফরাসি লিগে পুঁচকে স্ট্রাসবুর্গের কাছে হোঁচট খাওয়ার পর চ্যাম্পিয়নস লিগেও হারল তারা। গ্রুপ পর্বে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ৩-১ গোলে হেরেছে নেইমারের পিএসজি। মঙ্গলবার রাতে আলিয়েঞ্জ অ্যারেনায় বায়ার্নের আতিথ্য নেয় পিএসজি। শুরুতেই এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। ৮ মিনিটে প্রতি আক্রমণ থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন রবার্ট লেভানদভস্কি। চলতি মৌসুমে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলে এটি এই পোলিশ স্ট্রাইকারের ২০তম গোল। এরপর গোল পরিশোধ করতে প্রাণপণ চেষ্টা চালায় পিএসজি। তবে আক্রমণ ত্রয়ীর ব্যর্থতায় তা আলোর মুখ দেখেনি। এদিন এডিনসন কাভানি ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে। সেরা ছন্দে দেখা যায়নি নেইমারকে। মাঝে মধ্যে যা একটু গতির স্ফুরণ ঘটিয়ে প্রতিপক্ষ শিবিরে ভীতি সঞ্চার করেছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। উল্টো ৩৭ মিনিটে এগিয়ে যায় বায়ার্ন। রিয়াল থেকে ধারে খেলতে যাওয়া হামেস রদ্রিগেজের ক্রস থেকে গোল করে দলের ব্যবধান দ্বিগুণ করেন কোরোঁতাঁ তোলিসো। এতে ২-০ ব্যবধান নিয়ে বিরতিতে যায় জার্মান চ্যাম্পিয়নরা। বিরতি থেকে ফিরে আক্রমণের ধার বাড়ায় পিএসজি। এর ফলও হাতেনাতে পায় তারা। ৫০ মিনিটে কাভানির থেকে বল পেয়ে লক্ষ্যভেদ করেন এমবাপ্পে। এতে খেলায় নতুনরূপে প্রাণ সঞ্চারিত হয়। খেলায় ফেরার স্বপ্ন দেখতে থাকেন পিএসজি সমর্থকরা। তবে ৬৯ মিনিটে তাদের হৃদয় ক্ষত-বিক্ষত করেন সেই তোলিসো। এসময় প্রতি আক্রমণ থেকে কোমানের কাছ থেকে পেয়ে কোনাকুনি শটে বল জালে জড়ান এই ফরাসি তারকা। বাকি সময়ে আর গোল না হওয়ায় ৩-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বায়ার্ন মিউনিখ। এই জয়ে মধুর প্রতিশোধ নিয়েছে বুন্দেসলিগা চ্যাম্পিয়নরা। প্রথম লেগে ৩-০ গোলে পিএসজির কাছে লজ্জার হার বরণ করে তারা। এরপর বায়ার্নের ওপর দিয়ে তুমুল গতিতে ঝড় বয়ে যায়। ব্যর্থতার দায়ে বরখাস্ত হন কোচ কার্লো আনচেলত্তি। অবসর ভেঙে তার স্থলাভিষিক্ত হন ইয়ুপ হাইনকেস। নতুন মেয়াদে দায়িত্ব নিয়েই বায়ার্নকে বদলে দিয়েছেন তিনি। এখন তো বলতে গেলে উড়ছে দলটি। অবশ্য হেরে গেলেও খুব একটা লোকসান গুনতে হচ্ছে না পিএসজিকে। মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে থাকায় ‘বি’ গ্রুপে চ্যাম্পিয়ন ফরাসি দলটিই। তবে পয়েন্টের হিসাবে উনাই এমেরির দলকে ধরে ফেলল বায়ার্ন। এখন দুই দলেরই পয়েন্ট সমান ১৫ করে।


সংশ্লিষ্ট আরও খবর

সর্বশেষ খবর

Today's Visitor