Space For Advertisement

আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থী শেখ এ্যানীর জ¦রে কাপছে স্বরূপকাঠী

আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থী শেখ  এ্যানীর জ¦রে কাপছে স্বরূপকাঠী

এনএম দেলোয়ার : দেশীয় ও স্থানীয় ক্ষমতাসীন দলের রাজনীতির গ্যাড়াকলে পড়ে কেউ কাদে আবার কেউ দারুন ভাবে হাসে আর এ বানী চলতি সময়ে নেছারাবাদে সত্যতার ছাপ ফুটে উঠেছে। এই সময়ে উন্নয়নের রূপকার দক্ষিণবঙ্গের সাহসী পুরুষ বীরমুক্তিযোদ্বা একেএমএ আউয়াল এমপিকে সুকৌশলে এড়িয়ে চলারনীতি অবলম্বন করে স্থানীয় রাজনীতিবিদরা এক এক মন্ত্র পাঠে ব্যাস্ত সময় পার করছেন। কেউ প্রকাশ্যে আবার কেউ রাতের অন্ধকারে কেন্দ্রীয় নেতাদেরসহ শেখ পরিবারের নেতাদের নিয়ে মাঠ গরম করার কাজে ব্যাস্ত সময় পার করছেন। এ ব্যাপারে নেছারাবাদ উপজেলার স্থানীয় বেশ কয়েকজন শীর্ষ নেতা নাম না প্রকাশের শর্তে জানান, আসলে এ সময়ে স্থানীয় এমপির কাজকর্মে নাখোশ হয়ে নাম করা বেশ কয়েক জন নিজ নিজ অবস্থান তৈরী করতে ব্যাস্ত রয়েছেন। গত একবছরে কেন্দ্রীয় নেতা শম রেজাউল করিম, জিএম হায়দার, এমএ মালেকদের নজরে আসার জন্য তোর জোর লক্ষ্য করা গেছে। সর্বশেষ শেখ পরিবারের পুত্রবধু শেখ এ্যানীকে নিয়ে মাঠ গরমে ব্যাস্ত রয়েছে এন্টি আউয়াল অনুসারীরা। হয়তো কেউ প্রকাশ্যে বা কেউ ভিতরে ভিতরে কাজ করে যাচ্ছেন সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে। গত একসপ্তাহে পৌরসভাসহ উপজেলার সর্বত্র অলি-গলির দেয়ালে দেয়ালে শোভা পাচ্ছে শেখ এ্যানী রহমানের পোস্টার। অবশ্য এ আসন পরিবর্তন না হওয়ার সম্ভবনা নাই বললেই চলে আর সে বিধায় ক্ষমতাসীন দলের এন্টি আউয়াল অনুসারীরা আদার জল খেয়ে মাঠে রয়েছে। একটাই শ্লোগান এ সময়ে আউয়াল ঠেকাও আর এর জন্য যা যা করা দরকার তা করতে হবে সুকৌশলে। যদিও সাবেক এমপি অধ্যক্ষ শাহ আলম এবারের নির্বাচনী যুদ্ধে নেই বললেই চলে। যদি জেলার মধ্যে বা কেন্দ্রে কোন বড় ধরনের অঘটন না হয় তাহলে সে এবারের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নেতা হয়ে ভোট দিবে মাত্র। তবে চলতি সময়ে মালেক মিয়ার স্থানও বেশ নড়বড়ে। তবে কোন মতেই আউয়াল এমপিকে বাদ দেওয়া যায় না। যদিও মিডিয়ার কারণে এবং আউয়াল পরিবারের ভাইদের মধ্যে কেচ্ছা-কাহিনী কিছুটা ইমেজ সংকটে রয়েছে বর্তমান এমপির অবস্থান। তারপরও বীরমুক্তিযোদ্বা একেএমএ আউয়াল নেতা বলে কথা। অবশ্য এটাও সত্য ক্ষমতায় যেহেতু আওয়ামী লীগ আর সে পরিবারের পুত্রবধু শেখ এ্যানী রহমানকে কোন রকম হেলা করা ঠিক হবে না। যেহেতু বর্তমান এমপির বিশাল ইমেজ সংকট সৃস্টি হয়েছে বিগত চার বছরের রোজ নামচায়। এ ব্যাপারে এলাকার ও জেলার বিজ্ঞ রাজনীতিবিদরা মিডিয়াকে জানান, আসলেই এ সময়ে শেখ এ্যানীর জ¦রে কাপছে সমগ্র জেলাসহ নেছারাবাদও। আউয়াল এমপির বিকল্প তৈরী করতে যা যা দরকার তা করার চেষ্টা করে যাচ্ছে তবে সর্বশেষ কে হাসবে বিজয়ের হাসি আউয়াল নাকি শেখ এ্যানী। আর এ নিয়ে জল্পনা-কল্পনার শেষ নেই এন্টি আউয়াল অনুসারীদের। তবে সর্বশেষ শেখ এ্যানীর বিষয়ে স্থানীয় নেতাদের কেউই সরাসরি মুখ খুলে কিছু বলতে সাহস পাচ্ছেন না। তবে এটা সত্য এ সময়ে শেখ এ্যানীর জ¦রে কাপছে সমগ্র উপজেলা। 


সংশ্লিষ্ট আরও খবর

সর্বশেষ খবর

Today's Visitor