Space For Advertisement

ঘর রাঙান সঠিক রংয়ে

ঘর রাঙান সঠিক রংয়ে

ঢাকা, বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০১৮ (লাইফস্টাইল ডেস্ক) বাসার রং নির্বাচনের ক্ষেত্রে অধিকাংশ মানুষই বেছে নেন সাদা অথবা হালকা কোনো রং। তবে বিভিন্ন ঘরে ভিন্ন ভিন্ন রংয়ের ব্যবহার মনের উপর ব্যাপক প্রভাব ফেলে। রং সবসময় মনে উপর স্পর্শ বুলিয়ে যায়। উজ্জ্বল রংয়ে কারও চোখ জুড়ায়, কারও কড়া লাগে। কেউ আবার পছন্দ করে হালকা রং। রং-মনস্তাত্বিক বিশেজ্ঞদের মতে একই ভাবে ঘরের রংও মনের উপর প্রভাব ফেলে। তাই বাড়ির কক্ষগুলো সঠিক রংয়ে রাঙানো উচিত। মানসিক স্বাস্থ্য-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে এই বিষয়ের উপর প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে কোন ঘরে কী রকম রং থাকা উচিত সেটার একটা ধারণা এখানে দেওয়া হল।

বসার ঘর

বাসায় প্রবেশের সঙ্গে সঙ্গে এই ঘর সবার আগে চোখে পড়ে। সাধারণ হালকা রং যেমন: সাদা ব্যবহারে ঘরকে বড় দেখায়। তাই যে ঘরে মানুষের আসা যাওয়া বেশি সেখানে এই ধরনের রং বেছে নেওয়াই ভালো।  
শোবার ঘর: শোবার ঘর বিশ্রাম ও আরাম করার জায়গা। শোবার ঘরের জন্য সবুজ রং বেছে নিতে পারেন। এই রং ঘরের পরিবেশকে আরামদায়ক, বিশ্রাম নেওয়ার উপযোগী করে তোলে। আর মনকে করে শান্ত, স্থির ও প্রশমিত। 

লাল: একটু খেয়াল করে দেখবেন, যে কোনো খাবারের ব্র্যান্ড বা লোগোতে লাল ও হলুদের সংমিশ্রণ দেখা যায়। খাবার ঘর এলাকার উপযোগি রং হিসেবে লাল বেশ সুপরিচিত। লাল রং ক্ষুধা এবং আন্তরিকতা বাড়াতে সাহায্য করে।
নীল: যদি কোনো রং মনোযোগ বাড়াতে সাহায্য করে থাকে তাহলে সেটা হল নীল। বাসা, অফিস, পড়ার ঘর অথবা এমন কোনো ঘর যেখানে আপনার সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে কাজ করতে হয় সেখানে নীল রং ব্যবহার করুন।

রান্নাঘর: উজ্জ্বল উষ্ণ বর্ণের হলুদ রান্নাঘরের উষ্ণতা, উচ্ছ্বলতা ও আন্তরিকতা বাড়াতে সাহায্য করে। রান্নাঘর এমন একটি জায়গা যা পুরো পরিবারকে একত্রিত করে। আর এখানে হলুদের মতো উষ্ণ রং ব্যবহার করলে আন্তরিকতা আরও বাড়াতে সহায়তা করে।


সংশ্লিষ্ট আরও খবর

সর্বশেষ খবর

Today's Visitor