Space For Advertisement

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের আলোচনা সভা

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের আলোচনা সভা

ঢাকা, বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০১৮ (স্টাফ রিপোর্টার) : মুক্তিযুদ্ধত্তোর স্বাধীন বাংলাদেশে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ও বর্তমান প্রক্ষিত শীর্ষক আলোচনা সভা আজ ১০ জানুয়ারি সকাল ১০ টায় জাতীয় প্রেসক্লাব কনফারেন্স রমে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এম. পি, মাননীয় মন্ত্রী মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রনালয়। প্রধান আলোচক ছিলেন, ডা. মোস্তফা জামাল মহিউদ্দিন, সভাপতি বিএমএ ও সাবেক এম.পি। বিশেষ অতিথি ছিলেন, অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন, ইতিহাস বিভাগ, ঢাবি; বিচারপতি সামসুল হুদা, বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট; অধ্যক্ষ রওশন আরা মান্নান, এম.পি; অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ পাটোয়ারী, যুগ্ম-মহাসচিব সেক্টর কমান্ডার ফোরাম; অধ্যাপক ড. অসীম সরকার, প্রভোষ্ট জগন্নাথ হল, ঢাবি; আদম তমিজি হক, ব্যবস্থাপনা পরিষদ হক গ্রুপ; হারিছ হাসান সাগর, সহ-সভাপতি বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন; বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী আব্দুস সাত্তার, সিনিয়র সহ-সভাপতি, বাংলাদেশ তাঁতী লীগ। প্রধান আলোচক তার বক্তব্যে বলেন, বঙ্গবন্ধু দীর্ঘ নয় মাস পাকিস্তানে কারাবন্দি ছিলেন। সেখানে তাকে ফাঁসির কাষ্টে ঝোলানোর জন্য ফাঁসির মঞ্চ ও কবর তৈরি করা হয়েছিল। তাকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল আপনার শেষ ইচ্ছা কি? বঙ্গবন্ধু ফাঁসির মঞ্চে দাড়িয়ে বলেছিলেন, "পাকিস্তানের কাছে আমার চাওয়ার কিছু নাই; আমার শেষ ইচ্ছা মৃত্যুর পর আমার লাশটা বাংলার মাটিতে পৌছে দিয়েন" এই ছিল বাংলাদেশ ও বাঙ্গালী জাতির প্রতি অগাধ ভালোবাসা। ১৬ ডিসেম্বর দেশ স্বাধীন হওয়ার পর বিশ্ব কুটনৈতিক চাপে ১৯৭২ সালে ১০ জানুয়ারি এই মহান বিশ্বনেতা বাংলার মাটিতে ফিরে আসেন। সেদিন লাখ লাখ মানুষ বঙ্গবন্ধকে অভ্যর্থনা জানান। তাই তার মত নেতা পেয়ে আমরা আজ গর্বিত। তবে খুব অল্প সময়ে তাকে হারানোর বেদনা জাতি কোনদিন ভুলতে পারবেনা।অনুষ্ঠানটি পরিচালনায় ছিলেন, মো. জাকির হোসেন বাদল, সাধারন সম্পাদক ও রাসায়নবিদ মো. জাফর ইকবাল, যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন কেন্দ্রীয় কমিটি।


সংশ্লিষ্ট আরও খবর

সর্বশেষ খবর

Today's Visitor