Space For Advertisement

'লক্ষ্য' অর্জন পর্যন্ত সিরিয়ায় থাকবে মার্কিন সেনা

'লক্ষ্য' অর্জন পর্যন্ত সিরিয়ায় থাকবে মার্কিন সেনা

ঢাকা, সোমবার, ১৬ এপ্রিল ২০১৮ (মুক্তখবর ডেস্ক) : সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের 'লক্ষ্য' অর্জন না হওয়া পর্যন্ত দেশটিতে মার্কিন সেনা অবস্থান করবে বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন দূত নিকি হ্যালে। স্থানীয় সময় রোববার গণমাধ্যম ফক্স নিউজের সঙ্গে আলাপচারিতায় এ ঘোষণা দেন মার্কিন দূত। সংবাদমাদ্যম আলজাজিরার খবরে সিরিয়ায় হ্যালের তিনটি লক্ষ্যের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। সেগুলো হলো—যুক্তরাষ্ট্রের জন্য হুমকি হতে পারে এমন কোনো রাসায়নিক অস্ত্রের ব্যবহার বন্ধ করা, সিরিয়া থেকে জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটকে (আইএস) পুরোপুরি উচ্ছেদ করা ও সিরিয়া থেকে ইরানের ওপর নজরদারি করা। হ্যালে বলেন, 'আমরা মার্কিন সেনাদের এখানে দেখতে চেয়েছিলাম, কিন্তু আমরা যতক্ষণ না পর্যন্ত আমাদের ওই লক্ষ্যগুলো পুরণ করবো, ততক্ষণ সেনারা সিরিয়া ছাড়বে না।' আলাদা একটি সাক্ষাৎকারে হ্যালে বলেন, সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদকে সমর্থনের জন্য রাশিয়ার ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা আনার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। স্থানীয় সময় সোমবার ওই নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করা হবে। এদিকে সিরিয়ায় মার্কিন বাহিনীর অবস্থানের পক্ষে নিজের সমর্থনের কথা দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে জানিয়েছে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরোঁ।  তিনি বলেন, 'তাকে (ট্রাম্প) আমরা সিরিয়ায় সেনা অবস্থানের সিদ্ধান্তে রাজি করিয়েছি।' গেল সপ্তাহে সিরিয়ার পূর্ব ঘৌতা অঞ্চলের দৌমা শহরে রাসায়নিক হামলার অভিযোগ আনে দেশটির স্বেচ্ছাসেবক উদ্ধারকারী দল হোয়াইট হেলমেটসসহ আরও করেকটি সংস্থা। ওই হামলায় কমপক্ষে ৭০ জন নিহত হয়েছে বলে দাবি তোলে তারা। পরে শহরটিতে রাসায়নিক হামলার প্রমাণ মিলেছে বলে জানায় হোয়াইট হাউসও। তবে সিরিয়া সরকারের অন্যতম মিত্র রাশিয়া বরাবরই রাসায়নিক হামলার কথা অস্বীকার করে এসেছে। পরে গত শুক্রবার সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের বিভিন্ন ঘাঁটিতে হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স।  শুক্রবার মার্কিন জোটের হামলায় শতাধিক ক্ষেপণাস্ত্র সিরীয় ভূখণ্ড লক্ষ্য করে ছোঁড়ার দাবি করে মার্কিন সেনাবাহনী। তবে রাশিয়ার সেনাবাহিনী পশ্চিমাদের ছোড়া ১০৩টি ক্ষেপণাস্ত্রের ৭১টিই ভূপাতিত করেছে।


সংশ্লিষ্ট আরও খবর

সর্বশেষ খবর

Today's Visitor