Space For Advertisement

পটুয়াখালীতে তরুনী গৃহবধু ফাতেমার হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

পটুয়াখালীতে তরুনী গৃহবধু ফাতেমার হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

ঢাকা, বুধবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০১৮ (পটুয়াখালী প্রতিনিধি) : টুয়াখালীর কলাপাড়ায় তরুণী গৃহবধু ফাতেমার হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও দৃস্টন্তমুলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন করেছে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন, স্কুল কলেজ শিক্ষার্থীসহ এলাকাবাসী। বুধবার বেলা সাড়ে এগারটায় কলাপাড়া প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন করেছে নীলগঞ্জ ইউনিয়নবাসী। এতে কয়েক’শ নারী-পুরুষ ও কিশোর-কিশোরী ও শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহন করে।  এসময় বক্তারা অভিযোগ করেন, তরুনী গৃহবধূ ফাতেমা বেগম তার স্বামীর পরকীয়া প্রেমের প্রমান ধরে ফেলায় তাকে পরিকল্পিভাবে হত্যা করে ঘরের আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় হত্যাকারী স্বামী মোসলেম শিকদারকে আসামি করে মামলা করলেও পুলিশ নীরব ভুমিকায় রয়েছে। উল্লেখ্য, ২০ অক্টোবর দুপুরে এক সন্তানের মা ফাতেমাকে (২২) শ্বাসরোধ করে হত্যার পরে লাশ ঘরের আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রাখে স্বামী মোসলেম সিকদার (৫৬)। নীলগঞ্জের নাওভাঙ্গা গ্রামের মানুষ এসব জানতে পারলে ফাতেমার ঝুলন্ত মরদেহ নামিয়ে স্ট্রোক করে মারা গেছে এমন প্রচার চালায় মোসলেমসহ নিহত ফাতেমার সতীন ও সতীনের ছেলে। প্রথম দফায় পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ইউডি মামলা করে।  এ ঘটনার ফাতেমার বোন কাজল কলাপাড়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে ২৩ অক্টোবর একটি মামলা করেন। মামলায় ফাতেমার স্বামী মোসলেম সিকদার, সতিনের ছেলে আবু সায়েক সিকদার, সতীন হাজেরা বেগম, মোসলেমের বোন রওশনারা বেগমসহ পাঁচ জনের নাম উল্লেখ করে আরও কয়েকজনকে আসামি করা হয়। কাজল জানান, ৫৮ বছর বয়সী মোসলেম সিকদার সম্পর্কে চাচা হয়েও কিশোরী ফাতেমাকে দ্বিতীয় বিয়েতে বাধ্য করে। মোসলেমের কুকীর্তির প্রতিবাদ করায় পরিকল্পিতভাবে ফাতেমাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। বর্তমানে ফাতেমার হত্যার বিচারে মামলা করে মোসলেম সিকদার গংদের অব্যাহত হুমকিতে পরিবারের সবাই নিরাপত্তাহীন হয়ে আছেন। 


সংশ্লিষ্ট আরও খবর

সর্বশেষ খবর

Today's Visitor