Space For Advertisement

জমে উঠেছে শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

জমে উঠেছে শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

শেরপুর ঝিনাইগাতী প্রতিনিধি : দিন যতই যাচ্ছে নির্বাচনী মাঠ হচ্ছে উত্তাল, সেই সাথে বেড়েছে প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা। প্রার্থীরা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ভোট প্রার্থনা ও কৌশল বিনিময় করছেন। পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। ২৪ মার্চ এ উপজেলায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। গত ৭ই মার্চ প্রতীক বরাদ্দ পেয়েই প্রার্থীরা নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে নেমে পড়েছেন। পোস্টারে পোস্টোরে, গানের তালে তালে চলছে মাইকে প্রচার। এমনকি সামাজিক মাধ্যমগুলোতেও দেখা যাচ্ছে প্রার্থীদের প্রচার। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত প্রার্থীরা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ভোট প্রার্থনা করছেন। প্রার্থী, সমর্থক ও ভোটারদের চোখে এখন ঘুম নেই। উপজেলা নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা যায়, সীমান্তবর্তী এ উপজেলা ৭টি ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা হলো ১ লাখ ২৫ হাজার ২১৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৬১ হাজার ৬৪২ জন এবং মহিলা ভোটার ৬৩ হাজার ৫৭২ জন। ভোট কেন্দ্র রয়েছে ৫৩টি। এবারের নির্বাচনে ৩টি পদে মোট ১৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দীতা করছেন। চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দী প্রার্থীরা হলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস.এম আব্দুল্লাহেল ওয়ারেজ নাঈম (নৌকা), দলের বিদ্রোহী প্রার্থী উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আবুল কালাম আজাদ (আনারস), উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফারুক আহম্মেদ (মোটর সাইকেল), স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম বাদশা (দোয়াত কলম), সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান স্বতস্ত্র প্রার্থী আব্দুল ওয়াহেদ (হেলিকপ্টার) এবং ন্যাশনাল পিপলস পার্টি কর্তৃক মনোনীত প্রার্থী আব্দুল হাই (আম) প্রতীকে লড়াই করছেন। উক্ত উপজেলায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী নাঈম নির্বাচনের প্রথম থেকেই মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। উপজেলা, ইউনিয়ন ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ করে পথসভা, উঠান বৈঠক ও গণসংযোগে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পিছিয়ে নেই অন্যান্য প্রার্থীরাও। তবে ২ বারের চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম বাদশা শেষ পর্যায়ে প্রার্থী হওয়ায় ভোটের সমীকরণ ক্রমেরই পাল্টে যাচ্ছে। অপরদিকে উপজেলা চেয়ারম্যান পদের পাশাপাশি ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দীতা করছেন রকিবুল ইসলাম রোকন (চশমা), শ্রমিকের ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক নুহু (টিয়া পাখি), সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী (টিউব ওয়েল), মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম (মাইক), খাদ্য ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আব্দুর রহিম (তালা), বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম মক্কু (উড়ো জাহাজ)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান মোছা. লাইলী বেগম (কলসী), জেসমিন আক্তার (ফুটবল), জেবুনেছা কহিনূর (পদ্মফুল) ও ইসমতারা (হাঁস) মার্কা প্রতীকে লড়াই করছেন। 

 


সংশ্লিষ্ট আরও খবর

সর্বশেষ খবর

Today's Visitor