Space For Advertisement

দুর্গাপুর পৌরসদরে রাস্তার উপরে গাছের ডুম, জনচলাচলের ভোগান্তি চরমে

দুর্গাপুর পৌরসদরে রাস্তার উপরে গাছের ডুম, জনচলাচলের ভোগান্তি চরমে

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০১৯ (নেত্রকোনা প্রতিনিধি) : নেত্রকোনার দুর্গাপুর পৌরসদরের নাজিরপুর মোড় এলাকায় ‘স’ মিল মালিক ও কাঠ ব্যবসায়ীরা রাস্তা উপর গাছের ডুম ফেলে রাখায় জনচলাচলে ভোগান্তি,অতিষ্ট পথচারী। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পৌরসদরের নাজিরপুর মোড় একটি ব্যস্থতম রাস্তা। এই রাস্তার দৃশ্য এখন নাটের গুরুর ভূমিকায়। একদিকে কলমাকান্দার সাথে জনচলাচলের গনযাতায়াত রয়েছে। আরেকদিকে এই ব্যস্থতম রাস্তার পাশেই বেশ’কটি ‘স’ মিল সারিবদ্ধভাবে অবাধে চালিয়ে যাচ্ছে তাঁদের কার্যক্রম। মানছে কোন সরকারী নির্র্দেশনা। সকাল ৮টা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত স’ মিল চালানোর বিধি থাকলেও তোয়াক্ষা করছেনা এসব মিল মালিকরা। আর রাস্তার উপর সাড়িবদ্ধভাবে গাছের ডুম জমা করে বিঘœ সৃষ্টি করছে ওই মিল মালিকরা।এতে নজর নেই পৌর কর্তৃপক্ষের,উপজেলা প্রশাসন নিরব দর্শকের ভূমিকায়! এভাবেই চলছে স’ মিল মালিকদের অবাধ বাণিজ্য,জনভোগান্তি অতিচরমে। অপরদিকে নাজিরমোড় চৌরাস্তা মোড়টি যেন সিএনজি,ইজিবাইক,ভাড়ায় চালিত হুন্ডাদের দখলে। সারাক্ষণ রাস্তা উপর দাঁড়করিয়ে রাখছেন চালকরা ভাড়ায় চালিত হুন্ডা ও থ্রি-হুইলার। এতে করে রাস্তার মাঝে দীর্ঘযানজট সৃষ্টি হচ্ছে। পথচারী ও শিক্ষার্থীদের চলাচলে প্রচন্ড ব্যাঘাত হচ্ছে। উপজেলা আইন শৃংখলা মিটিংয়ে বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার উত্তাপণ করলেও মিলছে কোন কাঙ্খিত সেবা। বিধিবর্হিভূতভাবে চালিয়ে যাচ্ছেন এসব কর্ম। কোথায় গেলে পাবে এ প্রত্যাশিত সেবা এ দাবী এ উপজেলার সচেতন ও সুশীল সমাজের।  এ বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ তোফায়েল আহমেদ এর নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন,আমি বিষয়টি দেখছি। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ব্যাপারে পৌর মেয়র আব্দুস ছালাম বলেন,রাস্তার উপর গাছের টুম পেলে রাখার অন্যায়। জনচলাচলে ভোগান্তি হবে এমন কোন কাজ কারও করা উচিত নয়। আমি বিষয়টি দেখছি। এ ব্যাপারে রেঞ্জ কর্মকর্তা মোঃ সায়েদুল ইসলাম এর দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি বলেন অভিযুক্ত মিল মালিকদের  বিরুদ্ধে বিধিমোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।       

 


সংশ্লিষ্ট আরও খবর

সর্বশেষ খবর

Today's Visitor