বুধবার, ১৬ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং

ধেয়ে আসছে ‘ফণী’, তাপমাত্রা কমতে পারে আজ

মুক্তখবর :
এপ্রিল ২৮, ২০১৯
news-image

ঢাকা, রোববার, ২৮ এপ্রিল ২০১৯ (স্টাফ রিপোর্টার) : ঘূর্ণিঝড় ‘ফণীর’ প্রভাবে রোববার (২৮ এপ্রিল) থেকে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হতে পারে। দেশের অনেক জায়গায় তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হওয়া গভীর নিম্নচাপ থেকে ঘূর্ণিঝড়

‘ফণীর’ সৃষ্টি হয়েছে। জলবায়ু বিশেষজ্ঞ ও আবহাওয়া বিভাগের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, প্রচণ্ড শক্তি সঞ্চয় করে ‘ফণী’ বাংলাদেশে আঘাত হানতে পারে। নিরক্ষীয় ভারত মহাসাগর ও তৎসংলগ্ন দক্ষিণ বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত গভীর নিম্নচাপটি সামান্য উত্তর দিকে অগ্রসর ও ঘনীভূত হয়ে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়েছে।

ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কায় দেশের সব কটি সমুদ্রবন্দর ও কক্সবাজার উপকূলে ২ নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত নৌযানগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বঙ্গোপসাগরে না যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে আজ সিলেট ও ময়মনসিংহ এবং ঢাকার বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। কুমিল্লা, নোয়াখালী, রাজশাহী, রংপুর ও খুলনা বিভাগের কয়েকটি স্থানে কালবৈশাখী ও বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। বেশ কয়েকটি স্থানে শিলাবৃষ্টিও হতে পারে।

শনিবার (২৮ এপ্রিল) রাত আটটায় ঘূর্ণিঝড়টি চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ১ হাজার ৯৫৫ কিলোমিটার, কক্সবাজার থেকে ১ হাজার ৮৫৫, মোংলা থেকে ১ হাজার ৯২৫ ও পায়রা থেকে ১ হাজার ৮৮৯ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছিল।

এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের সাগর তীরের আট দেশের আবহাওয়া দপ্তরের নির্ধারিত তালিকা থেকে এই অঞ্চলের ঝড়ের নাম দেওয়া হয়। বাংলাদেশের প্রস্তাবিত নাম থেকে এই ঘূর্ণিঝড়ের নাম হয়েছে ‘ফণী’।