বুধবার, ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

ধানের ন্যায্য দাম থেকে বঞ্চিত করার প্রতিবাদে ও উপযুক্ত মূল্য প্রদানের দাবিতে ইনসানিয়াত বিপ্লবের মানববন্ধন

মুক্তখবর :
মে ১৭, ২০১৯
news-image

কৃষকদের ধানের ন্যায্য দাম থেকে বঞ্চিত করার প্রতিবাদে এবং উপযুক্ত মূল্য প্রদান করে কৃষি ও কৃষকদের রক্ষার দাবিতে মানবতা ভিত্তিক রাজনৈতিক দল বিশ্ব ইনসানিয়াত বিপ্লব ঢাকা মহানগর শাখার উদ্যোগে ঢাকা প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গনে আজ এক বিরাট মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

বিশ্ব সুন্নী আন্দোলন ও বিশ্ব ইনসানিয়াত বিপ্লবের প্রতিষ্ঠাতা আল্লামা ইমাম হায়াত এর দিক নির্দেশনায় অনুষ্ঠিত এ মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন জনাব শেখ রায়হান রাহবার। বক্তব্য রাখেন জনাব আরেফ সারতাজ, আবু আবরার চিস্তি, আহমদ শাহ মোর্শেদ, আওয়াল কাদেরী, শেখ হানিফ, মাঈনুল বারী, জনাব গোলাম ছাদেক, এডভোকেট শাকের হোসেন, অধ্যাপক মারুফ উদ্দিন, এডভোকেট মোকাররম হোসেন, আশরাফুল আলম, এডভোকেট মাঈনুদ্দিন, এডভোকেট শারমিন সুলতানা, এডভোকেট তানিয়া তানজিম, অধ্যাপিকা এমি নিশান।

মানববন্ধন পরবর্তী সমাবেশে বক্তাগণ বলেন, সরকারের অব্যবস্থাপনা ও দায়িত্বহীনতা এবং মধ্যসত্ত্বভোগী অসৎ ব্যবসায়ীদের কারসাজিতে সম্প্রতি উৎপাদন পর্যায়ে ধানের মূল্য মারাত্মক কমে যাওয়ায় কৃষকদের জীবনে মারাত্মক বিপর্যয় সৃষ্টি হয়েছে। ধানের বিক্রয়মূল্য উৎপাদন খরচের চেয়েও কম হয়ে যাওয়ায় উৎপাদনকারী কৃষকগণ মারাত্মক সংকটগ্রস্ত ও ভীষণ ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছেন।

ইনসানিয়াত বিপ্লবের নেতৃবৃন্দ বলেন, তৃণমূল পর্যায়ে উৎপাদনকারী কৃষকরা এমনিতেই বঞ্চিত, শোষিত ও অসহায়। নানারূপ প্রতিকূল অবস্থার মধ্যে কৃষি ও উৎপাদন ব্যবস্থা চালু রেখে দেশ ও জনগণের চাহিদা পূরণ করছেন। অনেকে ধার দেনা করে ও বর্গা চাষ করে উৎপাদন খরচ পর্যন্ত মিটাতে না পেরে এবং দেনা শোধ করতে না পেরে মহা বিপন্ন হয়ে পড়েছেন। অনেক যায়গায় কৃষক হতাশ হয়ে মারাত্মক দুঃখে নিজের ধানের ক্ষেতে আগুন দিয়েও সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণে ব্যর্থ হয়েছেন।

ইনসানিয়াত বিপ্লবের নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশ ও জনজীবনে অন্যান্য সকল সংকটের মত ধানের মূল্য পতনের পিছনেও মানবতাবিরোধী একক গোষ্ঠীবাদি অপরাজনীতির গণবিরোধী শোষণমূলক কারসাজি জড়িত। একমাত্র সর্বজনীন জনকল্যাণমূলক মানবতার রাজনীতি ও মানবতার রাষ্ট্রব্যবস্থার মাধ্যমেই মানবতাবিরোধী সকল অপশক্তির কারসাজি ও সকল সংকট থেকে দেশ ও জনগণের মুক্তি সম্ভব।

ইনসানিয়াত বিপ্লবের নেতৃবৃন্দ বলেন, কৃষকের সংকট সমগ্র জনগনের সংকট, কৃষক বিপন্ন হলে কৃষি ও কৃষিব্যবস্থা বিপর্যস্ত হয়ে সমস্ত জনগণ ও দেশ মহাসংকটে পড়বে। যে কোন মূল্যে ধানের মূল্য পতনের কারসাজি রোধ করে কৃষক ও উৎপাদন ব্যবস্থা রক্ষা করতে হবে। ধানের দাম কমে কৃষক বিপন্ন অথচ চালের দাম অনেক বেশী যা মধ্যবর্তী কারসাজি ও অব্যবস্থাপনা এবং জনবিরোধী অপরাজনীতির চক্রান্ত প্রমান করে। ধানের মূল্য পতন ও কৃষকদের হাহাকার সম্পর্কে সরকারী উদাসীনতা ও সময়োপযোগী ব্যবস্থা না নেয়ায় ইনসানিয়াতের নেতৃবৃন্দ গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

ইনসানিয়াত বিপ্লবের নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে সরকারীভাবে কৃষকদের চাহিদামত ভালো দামে ধান কিনে ও প্রয়োজনে ভর্তুকি দিয়ে এবং মধ্যবর্তী কারসাজি ও সকল অব্যবস্থাপনা দূর করে কৃষকদের এ সংকট থেকে উদ্ধার এবং মানবতা ভিত্তিক কৃষিনীতি ও জনকল্যাণমূলক কৃষিব্যবস্থা গড়ে তোলার আবেদন জানান।