মঙ্গলবার, ২৫শে জুন, ২০১৯ ইং

বিশ্বকাপে দ্রুততম ৫ সেঞ্চুরি

মুক্তখবর :
মে ২৫, ২০১৯
news-image

ঢাকা, শনিবার, ২৫ মে ২০১৯ (স্পোর্টস ডেস্ক) : আগামী ৩০ মে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলসে শুরু হতে যাচ্ছে আইসিসি বিশ্বকাপের ১২তম আসর। ক্রিকেট বিজ্ঞদের মতে, এবারের বিশ্বকাপে রান বন্যা হবে। উইকেট ব্যাটিং পিচ হওয়ার কারণে ব্যাটসম্যানরা সুবিধা পাবের বলে ধারণা করা হচ্ছে। এই বিশ্বকাপে রেকর্ডেও ছড়াছড়ি হবে বলে মনে করছেন তারা।

দেখে নেওয়া যাক ক্রিকেট বিশ্বকাপের বিগত ১১ আসরে এত এত সেঞ্চুরির তালিকায় কোন সেঞ্চুরিগুলো সবচেয়ে দ্রুত হয়েছে।

১. কেভিন ও’ব্রায়েন (৫০ বল)
বিশ্বকাপ ইতিহাসে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে কম বলে সেঞ্চুরির মালিক কেভিন ও’ব্রায়েন। ২০১১ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাত্র ৫০ বলে সেঞ্চুরি করেন আয়ারল্যান্ডের এই ব্যাটসম্যান।

ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ইংল্যান্ড ৩২৭ রান সংগ্রহ করে। লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে আইরিশ এ ব্যাটসম্যান যখন ক্রিজে এলেন, তখন ২৪ ওভার শেষে ১১১ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে আয়ারল্যান্ড। পরবর্তী ১০ ওভারেই খেলার মোড় একাই ঘুরিয়ে দেন কেভিন। মাত্র ৫০ বলে ১০০ রান করেন তিনি। ১৩টি চার ও ৬টি ছয়ের মারে শেষ পর্যন্ত ১১৩ রানে থামেন তিনি। হয়ে যান বিশ্বকাপের ইতিহাসে দ্রুততম শতকের মালিক।

২. গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (৫১ বল)

দ্রুততম সেঞ্চুরির তালিকায় দুই নম্বরে আছেন অস্ট্রেলিয়ার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের প্রথম শতক পান এই অজি ব্যাটসম্যান। ১০টি চার ও ৪ ছয়ের সাহায্যে ৫১ বলে শতক তুলে নেন তিনি।

৩. এবি ডি ভিলিয়ার্স (৫৫ বল)

২০১৫ সালের বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এই ম্যাচে দর্শকদের হতভম্ব করে দিয়ে মাত্র ৫৫ বলে সেঞ্চুরি তুলে নেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স।

তবে সেঞ্চুরি করেই থামেননি। তার ব্যাট থেকে আসে ২৪৫ স্ট্রাইকরেটে ৬৬ বলে ১৬২ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস। ১৭টি চার ও ৮টি ছয় মারার পথে মাত্র সাতটি ডট বল খেলেন ‘৩৬০ ডিগ্রি’খ্যাত এই প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান। এবি’র দানবীয় ইনিংসের উপর ভর করেই ৪০৮ রানের সংগ্রহ পায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

৪. ম্যাথু হেইডেন (৬৬ বল)

২০০৭ সালের বিশ্বকাপে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াইয়ে মুখোমুখি হয় অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা। শুরুর দিক থেকেই আফ্রিকান বোলারদের উপর চড়াও হন ম্যাথু হেইডেন। তার সঙ্গে ছিলেন অ্যাডাম গিলক্রিস্ট। শন পোলকের উপর ঝড়টা যেন একটু বেশিই যায়। শেষ পর্যন্ত ৬৬ বলে শতক তুলে নেন হেইডেন।

তৎকালীন সময়ের দ্রুততম বিশ্বকাপ শতক হাঁকান এই অজি ওপেনার। অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহেও দাঁড়ায় ৩৭৭ রানের বিশাল রান। তাড়া করতে নেমে ৮৩ রানের হার বরণ করে নিতে হয় প্রোটিয়াদের।

৫. জন ডেভিসন (৬৭ বল)

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২০০৩ সালের বিশ্বকাপে মাত্র ৬৭ বলে সেঞ্চুরি হাঁকান জন ডেভিলস। কানাডিয়ান এই ব্যাটসম্যান তৎকালীন সময়ে বিশ্বকাপের সবচেয়ে দ্রুততম সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে তাক লাগিয়ে দেন বিশ্বকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তার করা ১১১ রানের ইনিংসে ছিল ৬টি ছয় ও ৮ টি চার। তবে বাকি কেউই আর রান তুলতে না পারায় মাত্র ২০২ রানেই গুটিয়ে যায় দল। ম্যাচ জিতে নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।