মঙ্গলবার, ২৫শে জুন, ২০১৯ ইং

নরসিংদীতে দুই মেয়েকেই শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পাষন্ড বাবা

মুক্তখবর :
মে ২৫, ২০১৯
news-image

খন্দকার শাহিন: নরসিংদী শহরের কাউরিয়াপাড়া লঞ্চঘাটের টয়লেট থেকে দুই বোনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (২৪ মে) সন্ধ্যা ৭ টার দিকে লঞ্চ টার্মিনালের কর্মচারীরা টয়লেটের ভিতরে দুটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে লাশ দুটো উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন। নিহতরা মনোহরদী উপজেলার পূর্ব চালাক চর গ্রামের শফিকুল ইসলাম (৩৮) এর মেয়ে নুসরাত জাহান তাইন (১১) ও তানিশা তাইয়েবা (৪)। এঘটনায় বাবা শফিকুল ইসলামকে আটক করে পুলিশ। শফিকুল নিজেই তার দুই মেয়েকে হত্যা করেছে বলে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকারোক্তি দেন। গতকাল শনিবার দুপুরে নরসিংদীর পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহমেদ (বিপিএম, পিপিএম)। তিনি আরো বলেন মরদেহ দুটি উদ্ধারের সময় নিহতদের পিতাকে সন্দেহ হলে তাকে জিজ্ঞাবাদের জন্য আটক করা হয়। পরে স্বীকারোক্তিতে বলেন শফিকুল নিজেই প্রথমে তার ছোট মেয়ে টয়লেটের ভিতরে নিয়ে গিয়ে গলা টিপে শ^াসরোধ করে হত্যা করে, পরে বড় মেয়েকে একই কায়দায় হত্যা করে লাশ দুটো টয়লেটের ভিতরে রেখে পালিয়ে যায়। শফিকুলের কথাবার্তা ও আচার-আচরণে তাকে মানসিক ভারসাম্যহীন মনে হচ্ছে। তার স্বজনরা জানান, শফিকুল মানসিক ভারসাম্যহীন রোগী। কারণ পূর্বে তার মানসিক রোগ আছে এমন চিকিৎসা করা হয় হলে সে কিছুটা সুস্থ্য হয়।