শুক্রবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

রমজানে শসা যেসব কারণে দরকারি

মুক্তখবর :
মে ৩০, ২০১৯
news-image

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০১৯ (লাইফস্টাইল ডেস্ক): রমজান মাসে আমাদের খাবারের রুটিনে আমূল পরিবর্তন আসে। এই পরিবর্তনকে শরীরের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নিতে শসার জুড়ি নেই। শসার মধ্যে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ভরপুর থাকে। এছাড়াও আছে ভিটামিন কে, কপার, পটাশিয়াম, ভিটামিন সি, ম্যাঙ্গানিজ ইত্যাদি। যে কারণে প্রতিদিন একটা করে শসা খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ভাল। আবার রোজা রেখে এই গরমে শসা বেশি করে খাওয়া উচিত। কারণ শসার মধ্যে থাকা পানি আমাদের হাইড্রেট থাকতে সাহায্য করে। এছাড়াও আরো যে কাজ করে জেনে নিন। সংক্রমণে বাধা

যে কোনো রকম ইনফেকশন থেকে রক্ষা করে শসা। গরমে আমাদের ত্বকে নানা অ্যালার্জির সমস্যা দেখা যায়। গরম থেকেও ইউরিন জ্বালা হয়। এই সময় শসা খেলে খুবই উপকার পাওয়া যায়। এর মধ্যে থাকা বিশেষ উপাদান সংক্রমণে বাধা দেয়।

ক্যান্সারের সম্ভাবনা কমায়

প্রোস্টেট ক্যান্সার ও ব্রেস্ট ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে শসা খুবই ভাল কাজে আসে। শসার মধ্যে যে ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস থাকে তা ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়ক।

হজমে সাহায্য করে

রোজা রাখার কারণে আমাদের হজমে মারাত্নক সমস্যা হয়ে যায়। শসার মধ্যে হজম উপযোগী ফাইবার থাকে। ফলে যে কোনো কিছু খাওয়ার পর শসা খেলে তাড়াতাড়ি হজম হয়। আর খুব মসলাদার কোনো খাবার হলে তার সঙ্গে স্যালাডে শসা রাখা হয়।

হার্টের সমস্যা প্রতিরোধ

শসার মধ্যে থাকা পটাশিয়াম ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখে। এবং শরীরের পটাশিয়াম ব্যালেন্সও ঠিক রাখে। তাই শসা অবশ্যই খান।