সোমবার, ১৯শে আগস্ট, ২০১৯ ইং

সোনারগাঁওয়ে দুর্ধর্ষ ডাকাতি, নগদ টাকা ও সোনা লুট

মুক্তখবর :
জুন ১৫, ২০১৯
news-image

সোনারগাঁও প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে প্রবাসি নায়েব আলীর বাড়িতে এক দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতদল বাড়ির প্রধান ফটকের তালা ভেঙ্গে ঘরে ডুকে বাড়ির সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ঘরে থাকা নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার ও মোবাইল সেটসহ প্রায় ৪০ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায় বলে জানান বাড়ির লোকেরা। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার গভীর রাতে উপজেলার শম্ভুপুরা ইউনিয়নের ভিটিকান্দী গ্রামে। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলার প্রস্ততি চলছে।  পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার শম্ভুপুরা ইউনিয়নের ভিটিকান্দী গ্রামের প্রবাসী নায়েব আলীর বাড়িতে শুক্রবার গভীর রাতে ১৫-২০ জনের একটি মুখোশধারী ডাকাতদল সিএনজি ও মোটরসাইকেল যোগে হানাদেয়। এসময় বাড়ির প্রধান ফটকের তালা ভেঙ্গে প্রবেশ করে ঘরের লোকজনকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে হাত পা বেধে ফেলে। পরে আলমারি ভেঙ্গে ৭০ ভরি স্বর্ণ, নগদ ১ লাখ ৭৬ হাজার টাকা ও ৪টি মোবাইল সেট ২টি কম্পিউটার ও ২টি ল্যাপটব লুট করে নিয়ে যায়। অপরদিকে একই সময় নায়েব আলীর ভাই মঞ্জুর অলীর ঘরে ঢুকে মঞ্জুর , কবিতা, দীপু ও ইমরানকে হাত-পা বেধে নগদ ১ লাখ ৬৫ হাজার টাকা ৪টি মোবাইল সেট লুট করে। এসময় ডাকাতির বিষয়টি এলাকবাসী টের পেয়ে ডাকাতদের ধাওয়া করলে ডাকাতরা সিএনজি যোগে পালিয়ে যায়। মঞ্জুর আলী বলেন, গতবছর আমার বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাতদল আমাকে কুপিয়ে আহত করে। এসময় এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে ডাকাতদল পালিয়ে যায়। গতরাতে আমাকে ও আমার পরিবারের লোক জন ডাকাতদল হাত-পা বেধে বলেন এবার চিৎকার করলে শেষ করে ফেলবো। এ ভয়ে আমি ডাকচিৎকার করিনি। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুজ্জামান জানান, ডাকাতির ঘটনায় আমরা কাজ শুরু করেছি।