শুক্রবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৩ মানব পাচারকারী নিহত

মুক্তখবর :
জুন ২৫, ২০১৯
news-image

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০১৯ (নিজস্ব প্রতিনিধি): কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিন মানব পাচারকারী নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি, এসময় এক কর্মকর্তাসহ পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়েছেন। সোমবার দিনগত রাত পৌনে তিনটার দিকে উপজেলার মহেশখালীয়া পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন টেকনাফের সাবরাং নয়াপাড়ার আব্দুর শুক্কুরের ছেলে কোরবান আলী (৩০), পৌরসভার কে কে পাড়ার আলী হোসেনের ছেলে আব্দুল কাদের (২৫) ও একই এলাকার সুলতান আহম্মদের ছেলে আব্দুর রহমান (৩০)। টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাস জানান, ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত তিনজনই মানব পাচার মামলার পলাতক আসামি। দীর্ঘদিন ধরে তারা পালিয়ে বেড়াচ্ছিল। সোমবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়, তারা উপজেলার মহেশখালীয়া পাড়া ঘাটে অবস্থান করছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ থানা পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযান পরিচালনা করে। এসময় উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে মানব পাচারকারীরা। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে একপর্যায়ে তারা পিছু হটে। পরে ঘটনাস্থল থেকে তিন মানব পাচারকারীকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ছাড়া ঘটনাস্থল থেকে তিনটি দেশীয় তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র, ১৫ রাউন্ড গুলি ও ২০ রাউন্ড গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় টেকনাফ থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. সায়েফ, কনেস্টেবল মং ও মো. শুক্কুর আহত হয়েছেন বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।