বৃহস্পতিবার, ২১শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং

নয়নহীন ছত্রভঙ্গ বন্ড বাহিনী

মুক্তখবর :
জুলাই ৩, ২০১৯
news-image

ঢাকা, বুধবার, ০৩ জুলাই ২০১৯ (নিজস্ব প্রতিনিধি): বরগুনায় ছত্রভঙ্গ বন্ড বাহিনী, নেই নয়ন। তাই সস্তির নিঃশ্বাস ফেলছে জেলাবাসী। সর্বসাধারণ বলছে তাদের স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় আর যেন কোন নয়ন বা বন্ড বাহিনীর ছায়া না থাকে। আর সচেতন মহল বলছে পরিবারের সচেতনতা ও রাজনৈতিক দলের চিন্তা চেতনার পরিবর্তনই পারে নয়নের মত ত্রাসবিহীন সমাজ গড়তে। প্রশাসন বলছে সে সমাজ গড়তে সকলের সহায়তা প্রয়োজন।

বরগুনার কলেজ রোড, কেজি স্কুলসহ আশপাশের এলাকায় সস্তি ফিরেছে সাধারণ মানুষের মনে। এখন আর নয়ন বা বন্ড বাহিনীর কালো মেঘ নেই তাদের মাথার উপর, স্বাভাবিক হয়ে এসেছে তাদের জীবনযাত্রা। এলাকাবাসী বলছে, এর পরে কেউ অপরাধ করতে গেলে যেন অঙ্কুরেই বিনষ্ট করে দেয় প্রশাসন। আর বন্ডবাহীনির ছত্রছায়াদানকারীদের চিহ্নিত করে তাদেরও আইনের আওতায় আনা হোক। অবশ্য সচেতন মহল বলছে সন্তানদের প্রতি পরিবারের নজরদারী বাড়ানোর সাথে সাথে রাজনৈতিক দলগুলোকে সন্ত্রাসমুক্ত হতে হবে।

বরগুনা সচেতর নাগরিক কমিটি (সনাক) সহ-সভাপতি মনির হোসেন কামাল বলেন, তারা যে অপরাধ করে সেই অপরাধকে রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় মাফ করিয়ে আনা হয়। এজন্য সত্য বিচারের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়। এর ফলে তারা একের পর এক অপরাধ করতেই থাকে।

বরগুনা সচেতর নাগরিক কমিটি (সনাক) সভাপতি অ্যাডভোকেট মো: আনিসুর রহমান বলেন, কখনো কখনো দুই একটা অভিযোগ পরিবারের কাছে যায়। তখন বাবা মার ভুমিকা এমন হয় যে তার সন্তান এই রকম অপরাধ করতেই পারে না। তার যে কিছু করতে পারে না, এইরকম মানসিকতা থেকে পরিবারকে বেরিয়ে আসতে হবে।

এদিকে ক্ষমতাসীন দলের জেলা পর্যায়ের এই শীর্ষ রাজনৈতিক নেতার দাবী খুনি,সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজদের জায়গা থাকবেনা তাদের দলে।

বরগুনা-১ আসন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু বলেন, ‘কোন মাদক ব্যবসায়ী, খুনি, চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী আমাদের দলে যেন না ঢুকতে পারে সেই জন্য আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করবো।’

শুধু পুলিশি তৎপরতা নয় সমাজের সব শ্রেণী পেশার মানুষের সচেতনতাই পারে সন্ত্রাসমুক্ত সমাজ গড়তে। এমনটাই দাবী জেলা পুলিশের শীর্ষ এ কর্মকর্তার।

বরগুনা পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন বলেন, ‘পরিকল্পনা না, আমি মনে করি যে কোন সমস্যা সমাধানের জন্য তাৎক্ষণিকভাবেই প্রতিরোধ মূলক ব্যবস্থা শুরু করা উচিত।’

২০১৫ সালে নয়ন অপরাধ জগতে পা রাখে, মাত্র তিন থেকে চার বছরে গড়ে তোলে বন্ড বাহিনী। সর্বশেষ রিফাত নামের এক যুবককে প্রকাশ্য স্ত্রীর সামনে কুপিয়ে হত্যা করে। আর সে মামলায় পুলিশ গ্রেফতার করতে গেলে মঙ্গলবার( ২ জুলাই) বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয় নয়ন বন্ড।

-সূত্র : সময় সংবাদ