সোমবার, ১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

দুর্গাপুরে ট্রাকের ধাক্কায় ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী পানিতে নিখোঁজ, ২০মিনিট পর উদ্ধার

মুক্তখবর :
জুলাই ১৫, ২০১৯
news-image

কলিহাসান, দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি: নেত্রকোনার দুর্গাপুর বিরিশিরি-শ্যামগঞ্জ নোয়াপাড়া রাস্তা দিয়ে প্রাইভেট পড়ে আসার সময়ে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী রাকিব(১৪)কে বেপরোয়া ট্রাকটি ধাক্কা দিয়ে পানিতে ফেলে দেয়। পানিতে পরেই নিখোঁজ হন শিক্ষার্থী রাকিব, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস দল অনেকক্ষণ খুঁজে ব্যর্থ হয়, পরে ২০ মিনিটের চেষ্টায় ডুবুরী দল পানির নিচ থেকে মৃত উদ্ধার করে শিশুটিকে। সোমবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে এ করুণ দূর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন রেখেছে। তাৎক্ষণিত ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন ইউএনও ফারজানা খানম।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,দুর্গাপুর নাজিরপুর রাস্তার মোড় থেকে বিআরটিসি বাস সকাল ৮টার দিকে ২০জন যাত্রী নিয়ে ঢাকার পথে রওনা হয়। ঐ স্থানে পৌছা মাত্র সামনের দিক থেকে আসা মামনি এন্টারপ্রাইজ পরিবহন নামক একটি বেপরোয়া ট্রাক বিআর টিসি যাত্রীবাহি বাসটিকে সাইড না দিয়ে উল্টো সাইডে ধরে পাানিতে পড়ে যায় ট্র্কাটি।

ওই সময়ে প্রাইভেট পড়ে আসতে থাকা স্কুল শিক্ষার্থী রাকিবকে পেছন থেকে প্রচন্ড ধাক্কা দেয় ট্রাক। পানিতে লুটিয়ে পড়ে নিখোঁজ হন রাকিব। স্থানীয়রা দৌড়ে এলেও কোন হদিস পায়নি তারা। ঘটনাটি জানাজানি হলে উৎসুক জনতার প্রচন্ড ভীড়ে রাস্তার চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। রাকিবের বাবা নোয়পাড়া গ্রামের আব্দুল খালেক মুন্সি একজন রিক্সা চালক। দিনমজুরের ওই অর্থ দিয়ে তাকে কৃষনেরচর উচ্চ বিদ্যালয় স্কুলে পড়াচ্ছিলেন । সে পরিবারের ২ বোন ও ২ভাইয়ের মধ্যে সে দ্বিতীয় সন্তান ছিল বলেও জানা যায়।

ঘটনার সময়ে স্থানীয় কিছুসংখ্যক ব্যাক্তি নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক প্রশ্নে বলেন, জেলা শ্রমিক পরিবহনের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান ঐ বেপরোয়া ট্রাক মামনি এন্টারপ্রাইজ পরিবহনের মালিক। ওনার নাম ভাঙ্গিয়ে শান্তিপুর গ্রামের জনৈক এই ট্রাকের চালক দীর্ঘদিন ধরে বেপোরোয়া গতিতে রাস্তায় চলছিল। কারও কোন বাধাঁ নিষেধ মানতো না চালক। বেপরোয়া গতির বিষয়ে পথচারীরা কেউ কিছু বললে সে উত্তর দিতো এই ট্রাকের মালিক কে জান ?জেলা সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান!

স্থানীয়রা আরো জানান, প্রায় ২মাস পূর্বেও একই স্থানে ট্রাক ইজিবাইকের সংঘর্ষ ঘটেছিল। ঐ ঘটনার এখনো কোন মিমাংসা না হওয়ায় ঘটনাস্থলেই পড়ে আছে সেই ট্রাক আর দুমরে মুচরে যাওয়া ইজিবাইকটি। এখানে ট্রাকটি পড়ে থাকায় পেছন থেকে আসা বিআরটিসি বাসটিকে দেখে আর সামনে দিক থেকে আসা বেপরোয়া ট্রাকটি কোন উপায়ন্ত না পেয়ে গতিপথ পরিবর্তন করেছে বলেই এ দূর্ঘটনা ঘটতে পারে বলেও অনেকে ধারনা করেণ।

অভিযুক্ত ট্রাক চালকের ব্যাপারে জেলা শ্রমিক পরিবহন সমিতির সভাপতি সিদ্দিকুর রহমানের সাথে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমি এ ঘটনায় অত্যন্ত মর্মাহত। বিষয়টি আমি দেখছি এবং এ বিষয়টি নিয়ে দরবারে বসছি বলে ফোন কেটে দেন।

এ ব্যাপারে অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান বলেন, এখনো কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। লাশ ময়না তদন্তের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, লাশ পরিবারের লোকজনের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।