বুধবার, ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

বৃহত্তম নৌ ঘাঁটির উদ্বোধন করল কাতার

মুক্তখবর :
জুলাই ১৬, ২০১৯
news-image

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯ (মুক্তখবর ডেস্ক): ইরান নিয়ে মধ্যপ্রাচ্যের চলমান উত্তেজনার মধ্যেই বৃহত্তম একটি নৌ ঘাঁটির উদ্বোধন করেছে কাতার। বার্তা সংস্থা এএফপির বরাতে ডন অনলাইন জানায়, ছয় লাখ ৪০ হাজার বর্গমিটার এলাকা জুড়ে অবস্থিত নতুন এ নৌ ঘাঁটির মধ্যে অত্যাধুনিক একটি সমুদ্রবন্দর রয়েছে।

রোববার কাতারের প্রধানমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ বিন নাসের আল সানির সঙ্গে আল-দায়েন নৌ ঘাঁটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন নৌবাহিনীর কমান্ডার অ্যাডমিরাল জিম মালয়ও উপস্থিত ছিলেন।

চিরবৈরী সৌদি আরবে যখন মার্কিন বাহিনীর সঙ্গে যৌথ মহড়া চলছে, ঠিক সে সময়ই আল-দায়েন নৌ ঘাঁটির উদ্বোধন করা হল।

কাতার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফে জানানো হয়েছে, নতুন এ নৌ ঘাঁটি ছয় লাখ ৪০ হাজার বর্গমিটার এলাকা জুড়ে অবস্থিত। এ ঘাঁটি থেকে কাতারের সমস্ত পানিসীমা ও সীমান্তে নিরাপত্তা দেয়া সম্ভব হবে। কাতারের পানিসীমা ও সীমান্ত নিরাপত্তায় এ ঘাঁটি ব্যাপক ভূমিকা রাখবে।

অনুষ্ঠানে মার্কিন ৫ম নৌবহরের কমান্ডার জিম মালয় বলেন, কাতারের উপকূল রক্ষীদের সঙ্গে আরো জোরালোভাবে কাজ করার ক্ষেত্রে নতুন এ ঘাঁটিতে আমাদের জন্য চমৎকার সব সুযোগ সুবিধা থাকবে।

প্রসঙ্গত মধ্যপ্রাচ্যে মোতায়েন মার্কিন সেনাদের বিরাট একটি অংশ কাতারে অবস্থান করছে। কাতারের আল ওদায়েদ বিমান ঘাঁটি মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম সামরিক ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত। কাতার থেকে পরিচালিত এই ঘাঁটিতে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাপক সামরিক উপস্থিতি রয়েছে। এতে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদের অন্তত ১১ হাজার সৈন্য এবং শতাধিক যুদ্ধবিমান রয়েছে।

২০১৭ সালে জুনে কাতারের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক ও কূটনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে সৌদি, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিসর। ইরানের সঙ্গে উষ্ণ সম্পর্ক ও সন্ত্রাসবাদের সমর্থনের অভিযোগ আনা হয় উপসাগরীয় ক্ষুদ্র দেশটির বিরুদ্ধে।