শনিবার, ২৪শে আগস্ট, ২০১৯ ইং

ক্যান্সারের মতো যদি দুর্নীতি ছড়িয়ে পরে তাহলে উন্নয়ন করা সম্ভব না: সোহেল তাজ

মুক্তখবর :
জুলাই ১৭, ২০১৯
news-image

কাপাসিয়া (গাজীপুর) প্রতিনিধি: বাংলাদেশ প্রথম প্রধানমন্ত্রী বঙ্গতাজ তাজউদ্দিন আহমদের ছেলে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমদ সোহেল তাজ বলেছেন, দূর্নীতি আমাদের পিছু ছাড়ছে না। দূর্নীতিই আমাদের পিছনে ফেলে দিচ্ছে। জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন ও উন্নয়নে প্রধান বাধা হলো দূর্নীতি। দুর্নীতি নামক ক্যান্সারকে যদি আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে তবে সোনার বাংলা গড়ে তোলা সম্ভব হবেনা। তাই আমাদেরকে দুর্নীতির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে লড়াই করতে হবে। বঙ্গবন্ধু স্বাধীন দেশের স্বপ্ন দেখেছিলেন আর সে স্বপ্নকে বাস্তব রূপ দিয়েছিলেন তাজউদ্দীন আহমদ। বাংলার সাধারণ মানুষের মুক্তি,অধিকার ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার চেতনায় তাজউদ্দিন আহমদ সর্বদা উজ্জীবিত ছিলেন। তাই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে হলে আমাদের নিজেদেরকে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। দূর্নীতি হলো আমাদের সমাজের ক্যান্সার। দূর্নীতি আমাদের সমাজকে ক্যান্সারের মতো কুঁড়ে কুঁড়ে খাচ্ছে। তাজউদ্দীন আহমদের এলাকায় দূর্নীতিবাজের কোন স্থান নেই। দেশব্যাপী দূর্নীতির বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষ এখন যথেষ্ট সোচ্চার হয়েছে। দূর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে শপথ নিতে হবে। আমরা দূর্নীতি করবো না, দূর্নীতিকে কোন স্থান দিবো না। তাজউদ্দীন আহমদের চালিকা শক্তি ছিল সাধারণ মানুষের মুক্তি, অন্যায়ের প্রতিবাদ। আমরা সবাই মিলে এমন একটি দেশ গড়বো, যেখানে ধনী-গরীবের সমান অধিকার থাকবে। কোন মানুষ কেউ কারো বাধা সৃষ্টি করবে না। অন্যায় ভাবে কারো অধিকারে হস্তক্ষেপ করবে না। তাজউদ্দীন আহমেদ মানুষের অধিকারের জন্য জীবন দিয়েছেন। তিনি ছিলেন নিবেদিত প্রাণ। নতুন প্রজন্মের কাছে তাঁর আদর্শ প্রচার করতে হবে। তিনি ১৬ জুলাই মঙ্গলবার বিকালে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী বঙ্গতাজ তাজউদ্দীন আহমদের ৯৪তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে গাজীপুরের কাপাসিয়ায় ১০ দিনব্যাপী কর্মসূচীর উদ্বোধন পরবর্তি সমাবেশে উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন। উপজেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে মঙ্গলবার বিকালে কাপাসিয়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রধান অতিথি হিসাবে আনুষ্ঠানিক ভাবে জন্মবার্ষিকীর কর্মসূচি উদ্বোধণ করেন। পরে সোহেল তাজের নেতৃত্বে দলীয় নেতা-কর্মীদের অংশগ্রহনে একটি আনন্দ র‌্যালী সদর রোড পদক্ষিণ করে। পরে উপজেলা যুবলীগের উদ্যোগে সভাপতি মাহবুব উদ্দীন আহমদ সেলিমের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান সাখাওয়াত হোসেন প্রধানের পরিচালনায় কাপাসিয়া পুরাতন ধান বাজারে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বঙ্গতাজ পুত্র সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমদ সোহেল তাজ। অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক এমপি আলহাজ্ব মুহম্মদ শহীদুল্লাহ্, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাড. আলহাজ্ব আমানত হোসেন খান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান প্রধান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রওশন আরা সরকার, যুবলীগ নেতা ফরহাদ মোল্লা, আল আমীন শেখ, এম এ খালেক, ফকরুল সিকদার সহ বিভিন্ন নেত্রী বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী শহীদ তাজউদ্দীন আহমদের ৯৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে তাঁর জন্মস্থান গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলায় ১০ দিনের কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের মধ্যে রচনা, চিত্রাঙ্কন, উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভা ও আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে নানা কর্মসূচি পালিত হবে আগামি ৩১ জুলাই পর্যন্তচলবে এ কর্মসূচি। কাপাসিয়া শহরে আনন্দ র‌্যালি, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের মধ্যে রচনা, চিত্রাঙ্কন, উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। ১৯২৫ সালের ২৩ জুলাই কাপাসিয়ার দরদরিয়া গ্রামে মৌলভী মুহাম্মদ ইয়াসিন ও মেহেরুন্নেছা খানম দম্পতির ঘরে জন্ম নেন তাজউদ্দীন আহমদ। ১৯৬৪ সালে তিনি আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ৬৬ সালে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর বন্দি অবস্থায় কারাগারের ভেতর স্বাধীনতা বিরোধী ঘাতকদের গুলিতে তিনি সহ জাতীয় চার নেতা শহীদ হন।