বৃহস্পতিবার, ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

কাশ্মীরে জঙ্গি হামলার শঙ্কা, পর্যটকদের এলাকা ছাড়ার নির্দেশ

মুক্তখবর :
আগস্ট ৫, ২০১৯
news-image

ঢাকা, সোমবার, ০৫ আগষ্ট ২০১৯ (মুক্তখবর ডেস্ক): জম্মু-কাশ্মীরে জঙ্গি হামলার আশঙ্কায় তিন দিন ধরে চরম উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। এলাকাজুড়ে নেওয়া হয়েছে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা। দেশি-বিদেশি পর্যটক থেকে শুরু করে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের তীর্থস্থান অমরনাথযাত্রীদের প্রত্যেককেই কাশ্মীর ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এ খবর জানিয়েছে। ভারতীয় সেনার পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, অন্তত ২০ জন পাকিস্তানি জঙ্গির দল ভারতীয় সেনার ওপরে বড় ধরনের একটি হামলার ছক কষছিল। এর মধ্যে গত শনিবার পাকিস্তানের বর্ডার অ্যাকশন টিমের (বিএটি) পাঁচ সদস্য ভারতে ঢুকে পড়ে কেরান সেক্টরের একটি ফরোয়ার্ড পোস্টে হামলার চেষ্টা চালায়। অনুপ্রবেশকারীরা সীমান্তরেখা পেরিয়ে একটি ভারতীয় ঘাঁটির খুব কাছে পৌঁছে যায়। কিন্তু হাম‌লা চালানোর আগেই ভারতীয় সেনারা গুলি করে তাদের হত্যা করে। নিহতদের দেহ ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য পাকিস্তানকে জানালেও তারা এখনো সাড়া দেয়নি বলে দাবি ভারতীয় সেনাদের। গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর দাবি, গত ফেব্রুয়ারিতে পুলওয়ামায় হওয়া জঙ্গি হামলার মতোই বড় ধরনের কোনো হামলা চালানোর ছক কষছে জঙ্গিরা। তারা তাদের একটি প্রচেষ্টা সফলও করে ফেলেছে। চার থেকে পাঁচ জঙ্গির একটি দল ভারতে প্রবেশ করেছে। গোয়েন্দা বাহিনী বলছে, এ পরিস্থিতিতে অমরনাথযাত্রা বন্ধ না করলে অনেক ঝুঁকি হয়ে যেত। গত ফেব্রুয়ারিতে পুলওয়ামায় আধা-সামরিক বাহিনীর একটি কনভয়ে আত্মঘাতী হামলা চালায় জঙ্গিরা। ওই হামলায় ৪০ জন জওয়ান নিহত হয়েছিলেন‌। এই কদিনে জম্মু-কাশ্মীরে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এলাকায় ৩৫ হাজার আধা-সামরিক বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। অমরনাথের তীর্থযাত্রী ও পর্যটকদের দ্রুত রাজ্য ছেড়ে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এমন ঘোষণার পর এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এলাকাজুড়ে বহু মানুষের ভিড় দেখা গেছে। আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন পর্যটক ও তীর্থযাত্রীরা, যাঁদের মধ্যে রয়েছেন অনেক বিদেশি নাগরিক। সবাই কাশ্মীর ছাড়ার চেষ্টা করছেন।