মঙ্গলবার, ২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং

ভারতের সিদ্ধান্তে চীনের সার্বভৌমত্ব বিঘ্নিত হবে: ইমরান খান

মুক্তখবর :
আগস্ট ৭, ২০১৯
news-image

ঢাকা, বুধবার, ০৭ আগষ্ট ২০১৯ (মুক্তখবর ডেস্ক) : ভারতের ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তের জেরে চীনের আঞ্চলিক সার্বভৌমত্ব বিঘ্নিত হতে পারে বলে জানিয়েছেন পকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেন, ভারতের এই সিদ্ধান্ত চীনও সমর্থনও করে না। এই সিদ্ধান্ত কোনোমতেই গ্রহণযোগ্য নয়। খবর নিউজ ১৮। কাশ্মীর প্রসঙ্গে মঙ্গলবার সংসদে বক্তব্য রাখতে গিয়ে একথা বলেন পাক-প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেন, যখন পুলওয়ামা হামলা হয়েছিল তখনও পাকিস্তানকে দোষারোপ করেছিল ভারত। এই অভিযোগের সত্যতা না থাকা সত্ত্বেও বার বার পাকিস্তানের দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছে মোদি সরকার। কিন্তু তা সত্ত্বেও উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে ফেরত পাঠিয়েছি আমরা।

তিনি আরও বলেন, বর্তমান সরকারের মতে ভারত শুধু হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বাসস্থান ও এটাই ভারতের শাসক সরকারের রাজনৈতিক মতাদর্শ। ভারতে এই মুহূর্তে যা পরিস্থিতি সেখানে প্রত্যেক ভারতীয় নাগরিক কোনোভাবেই সমান নন। সংসদে ইমরান বলেন, ভারতে গিয়ে আমি এমন অনেকের সঙ্গেই কথা বলেছি যারা দ্বৈত রাষ্ট্রের বিষয়টি মানেন না ও তারা পাকিস্তান গঠনের বিষয়টি সমর্থন করেন না। কিন্তু আজ তারাও জিন্নাহর পন্থাকে সমর্থন করছেন।

সোমবার ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ নম্বর অনুচ্ছেদে কাশ্মিরকে যে স্বায়ত্তশাসিত রাজ্যের মর্যাদা দেওয়া হয়েছিল সেটি বাতিলের ঘোষণা দেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। একইসঙ্গে কাশ্মীর থেকে ভেঙে লাদাখকে আলাদা করার ঘোষণাও দেন তিনি।

গত সপ্তাহ থেকেই জম্মু-কাশ্মীরে অতিরিক্ত আধা সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। শুক্রবার সরকারের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, অমরনাথের তীর্থযাত্রী ও পর্যটকদের দ্রুত রাজ্য ছেড়ে চলে যেতে হবে। ওই ঘোষণার পরেই আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে রাজ্যে। সোমবার রাতে পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় বিল পাসের পর জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মহেবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লাকে গ্রেফতার করা হয়। উপত্যকার বেশ কিছু এলাকায় জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা।