বৃহস্পতিবার, ২২শে আগস্ট, ২০১৯ ইং

মাধবদীতে প্রতিপক্ষের দায়ের কোপে বৃদ্ধ সহ আহত-৫

মুক্তখবর :
আগস্ট ১০, ২০১৯
news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক:
নরসিংদীর মাধবদী থানাধীন কান্দাপাড়া গ্রামে নাত বউকে বাঁচাতে গিয়ে প্রতিপক্ষের দায়ের কোপে বিলাতুন বেগম (৯০) সহ পাঁচ জন গুরুতর আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বিলাতুন একই গ্রামে মৃত: আছিম উদ্দিনের স্ত্রী। এছাড়া এ হামলায় আহত হয়েছেন আল-আমিনের স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৩৫), ছেলে মোঃ রিফাত (১৭) ও মোঃ রিহান এবং প্রতিবেশীর মেয়ে মোসাম্মৎ ঋতু বেগম(১৮। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চেয়ে মাধবদী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগী আল-আমিন।

জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার সকালে আল-আমিনের বাড়ির আঙ্গিনায় ময়লা পানি ফেলাকে কেন্দ্র করে আল-আমিনের স্ত্রী ফাতেমা আক্তার (৩৫) এর সাথে প্রতিবেশী আহাম্মদ আলীর স্ত্রীর কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে দুপুর একটার দিকে মৃত: তাহের আলীর ছেলে আহাম্মদ আলী(৩২), আহাম্মদ আলীর স্ত্রী, মোঃ আলিম মিয়া (৩০) সহ অজ্ঞাতনামা ৩/৪ জন মিলে দা,বটি, কাঠের রোল ও লাঠিসোটা নিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে আল-আমিনের স্ত্রী ফাতেমা (৩৫), তার দুই ছেলে রিফাত, রিহান ও প্রতিবেশীর মেয়ে ঋতু আক্তারকে পিটিয়ে আহত করে। পরবর্তীতে আহাম্মদ আলী তার ধারালো দা দিয়ে ফাতেমাকে কুপ দিতে চাইলে তার নানী বিলাতুন বেগম (৯০) তা প্রতিহত করতে গিয়ে নিজে দায়ের কুপ খেয়ে মারাত্মক ভাবে রক্তাক্ত জখম হন। বিলাতুন বেগম বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানান আল-আমিন।

এ হামলার প্রত্যক্ষদর্শী প্রতিবেশী হাজী সামসুল হক বলেন, ‘আমি ঘর থেকে বের হয়ে দেখি যে, ভূক্তভূগী পরিবারের সদস্যরা প্রতিপক্ষের ভয়ে তার নানীর ঘরে আশ্রয় নিয়েছে কিন্তু প্রতিপক্ষের লোকজন সেখানে গিয়ে বাড়ির গেট ভেঙে তাদের উপর হামলা চালিয়ে তাদের আহত করে’।

মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আবু তাহের দেওয়ান জানান, এ ব্যাপারে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে আল-আমিন। তবে
ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।