বুধবার, ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

সোনারগাঁওয়ে নৃত্যশিল্পীকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৩

মুক্তখবর :
আগস্ট ২০, ২০১৯
news-image

স্টাফ রিপোর্টার (সোনারগাঁ) : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে এক নৃত্যশিল্পিকে পালাক্রমে গণধর্ষণ করেছে ৫ বখাটে। ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার উপজেলার দড়িকান্দি এলাকায়। এ ঘটনায় ধর্ষিতা বাদী হয়ে সোমবার রাতে মাহমুদুল হাসান হিমেল(২৫),শফিকুল ইসলাম(২৪),সজিব(২০),সানজিদ(২০) ও সিয়াম(২২) ৫ জনকে আসামী করে সোনারগাঁও থানায় ধর্ষণের মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ অভিযুক্ত ৩ ধর্ষককে আটক করেছে।
মামলার এজাহারে উল্লেখ, ধর্ষিতা একজন পেশাদার নৃত্যশিল্পী। সে বিভিন্ন বিয়েসাদী, সুন্নাতে খাৎনা, কোম্পানির বার্ষিক অনুষ্ঠানের স্ট্রেজ শোতে নৃত্য করে থাকেন। উপজেলার সুচারগাঁও গ্রামের আব্দুল্লাহ ছেলে মাহমুদুল হাসান হিমেলর সাথে তার পুর্ব পরিচয় ছিলো। সে সুবাধে মোবাইল ফোনে সোমবার দুপুরে দড়িকান্দি এলাকায় অবস্থিত সেফওয়ে আইসক্রিম ও তিব্বত ফ্যাক্টরি স্ট্রেজ প্রোগ্রামে নৃত্য করা জন্য সহপাটিদের নিয়ে আসতে ৬ হাজার টাকায় ভাড়া করে ১ হাজার টাকা বিকাশে পাঠিয়েদেয়। তার কথা মতো ধর্ষিতা নৃত্যলিল্পী সোমবার দুপুরে সেফওয়ে ফ্যাক্টরীতে আসলে হিমেল মেকআপ করানোর কথা বলে সেফওয়ে ফ্যাক্টরীতে সিকিউরিটি ব্যাকের সামনে নিয়ে যায়। এসময় তার সাথে থাকা ড্যান্সার মামুনকে হিমেলের সহপাটি শফিকুল ইসলাম, সজিব ও সিয়াম জিম্মি করে অন্যত্রনিয়ে যায়। নৃত্যশিল্পীকে কাশবনে নিয়ে হিমেলসহ ৪ জন মিলে পালাক্রমে গণধর্ষণ করে। সিয়াম ধর্ষকদের ধর্ষণ করতে সহযোগিতা করেন।
পরে ধর্ষিতা সোনারগাঁও থানায় অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে, মাহমুদুল হাসান হিমেল, শফিকুল ইসলাম ও সজিব নামের তিন জনকে গ্রেফতার করে।
ধর্ষক মাহমুদুল হাসান হিমেল সোনারগাঁ উপজেলার সুচারগাঁও গ্রামের আব্দুল্লাহর ছেলে,শফিকুল ইসলাম কাজীরগাঁও গ্রামের মৃত আলী আহম্মেদের ছেলে, সজিব ইলিয়াসদী গ্রামের হাসানের ছেলে,সানজিদ একই গ্রামের শাহজাহানের ছেলে ও সিয়াম বন্দর উপজেলার কামতাল গ্রামের মজিবরের ছেলে।
সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুজ্জামান জানান, নৃত্যশিল্পীকে গণধর্ষনের ঘটনায় অভিযান চালিয়ে মাহমুদুল হাসান হিমেল, শফিকুল ইসলাম ও সজিবসহ তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকীদের গ্রেফতার করতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।