শুক্রবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে বাংলাদেশকে দুষল মিয়ানমার

মুক্তখবর :
আগস্ট ২৪, ২০১৯
news-image

ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগষ্ট ২০১৯ (মুক্তখবর ডেস্ক) : দ্বিতীয় দফাতেও রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ব্যর্থ হওয়ার জন্য বাংলাদেশকে দুষলো মিয়ানমার। শুক্রবার (২৩ আগস্ট) দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে, বাংলাদেশের পক্ষ থেকে সঠিক কাগজপত্র দিতে না পারার দাবি করা হয়। তবে বাংলাদেশ নয়, মিয়ানমারের কারণেই প্রত্যাবাসন শুরু করা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) প্রায় সাড়ে তিন হাজার রোহিঙ্গার মিয়ানমারে ফেরার মাধ্যমে দ্বিতীয় দফায় প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু রোহিঙ্গাদের অনিচ্ছা ও নানা শর্তের মুখে আবারো তা ভেস্তে যায়। সব ধরনের প্রস্তুতি সত্ত্বেও দ্বিতীয় দফার উদ্যোগ বাস্তবায়ন করতে না পারার জন্য আবারো বাংলাদেশকেই দুষেছে মিয়ানমার। রোহিঙ্গাদের যাচাই বাছাইয়ে সঠিক কাগজপত্র দিতে না পারায় প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া ব্যর্থ হয় বলে দাবি দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের। চারশ’ হিন্দু রোহিঙ্গাকে ফিরিয়ে দিতে মিয়ানমারের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হলেও বাংলাদেশ তা প্রত্যাখ্যান করে বলেও দাবি তাদের। তবে জাতিসংঘ বলছে বাংলাদেশ নয়, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে প্রস্তুত নয় মিয়ানমার সরকার। উত্তরাঞ্চলীয় রাখাইন রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতি রোহিঙ্গাদের ফেরার অনুকূল নয়।  জাতিসংঘের আবাসিক ও মানবিক সহায়তা বিষয়ক সমন্বয়ক কেনিউট অস্টবাই বলেন, রোহিঙ্গারা যাতে ফিরতে পারে আগে সেই পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে। সঠিক জীবনমান ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করলে তবেই তারা ফিরতে পারবে। রাখাইনে ফিরে যাওয়ার অধিকার রয়েছে তাদের। রোহিঙ্গারা যখন ফিরে যাবে তারা যেন স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারে সে পরিবেশও গড়ে তুলতে হবে। এর আগে গত বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ জানায়, গণহত্যার উদ্দেশ্যেই ২০১৭ সালে যৌন সহিংসতা চালানোর পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের দেশত্যাগে বাধ্য করে মিয়ানমারের সেনারা।