রবিবার, ২০শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং

বন্ধুর রাজনৈতিক মন্তব্যে যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকতে পারলেন না হার্ভার্ড শিক্ষার্থী

মুক্তখবর :
আগস্ট ২৮, ২০১৯
news-image

ঢাকা, বুধবার, ২৮ আগষ্ট ২০১৯ (মুক্তখবর ডেস্ক) : হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়া এক ফিলিস্তিনি শিক্ষার্থী দাবি করেছেন, বোস্টন বিমানবন্দরে তাকে কয়েক ঘণ্টা ধরে আটকে রাখা হয়েছে এবং যুক্তরাষ্ট্রে তাকে ঢুকতে দেয়া হয়নি।

সামাজিকমাধ্যমে তার বন্ধুর রাজনৈতিক মন্তব্যের জেরে তার ওপর এই খড়গ চেপেছে বলে তিনি দাবি করেন।-খবর এএফপির

লেবাননে বাস করা ইসমাইল আজওয়াই বলেন, লোগান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে শুক্রবার তাকে যখন আট ঘণ্টা জেরা করা হয়, তখন তার ধর্ম নিয়েও জিজ্ঞাসা করা হয়েছে।

ক্যাম্পাসের সংবাদমাধ্যম দ্য হার্ভার্ড ক্রিমসনে দেয়া বিবরণে তিনি এসব কথা বলেন।

পাঁচ ঘণ্টা তার ব্যক্তিগত ফোন ও ল্যাপটপে তল্লাশি করার পর এক কর্মকর্তা তাকে একটি কক্ষে নিয়ে ব্যাপক চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করেন।

ক্রিমসনকে দেয়া এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘ওই নারী কর্মকর্তা বলেন- তিনি দেখেছেন, আমরা বন্ধু তালিকায় কেউ এমন রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি পোস্ট করেছেন, যা যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধী।

১৭ বছর বয়সী ওই শিক্ষার্থী বলেন, বন্ধুর ওই মন্তব্যের তিনি বিরোধিতা করেছেন। তিনি নিজে কখনও রাজনৈতিক মতামত পোস্ট করেননি। তথাপি তার ভিসা বাতিল করে দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

আজওয়াইকে ফেরত পাঠানোর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছে যুক্তরাষ্ট্রের শুল্ক ও সীমান্ত সুরক্ষা সংস্থা। কিন্তু গোপনীয়তা ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থার স্বার্থে নির্দিষ্ট কোনো তথ্য দেয়া হয়নি।

সংস্থার এক মুখপাত্র মাইকেল ম্যাকার্থি বলেন, সিবিপির তল্লাশির সময় পাওয়া তথ্যের ওপর ভিত্তি করে যুক্তরাষ্ট্রে তাকে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি।

দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, তিনি আইনগতভাবে এ বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত আলাপ করার ক্ষমতা রাখেন না।

তবে আইনে বৈধ এমন কোনো বিবৃতি কিংবা মতামতের ওপর ভর করে কারও ভিসা প্রত্যাখ্যান অনুমোদন করে না যুক্তরাষ্ট্র বলে জানান ওই কর্মকর্তা।

দ্য হার্ভার্ড ক্রিমসন জানায়, তিনি (ইসমাইল আজওয়াই) আশা করছেন, আগামী সপ্তাহে হার্ভার্ডে তার ক্লাস শুরু হওয়ার আগেই বিষয়টির নিষ্পত্তি ঘটবে।