শুক্রবার, ১৫ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং

ময়মনসিংহ রেল স্টেশন ইয়ার্ডে আগাছায় কোটি কোটি টাকার সম্পদ ধ্বংস

মুক্তখবর :
আগস্ট ২৯, ২০১৯
news-image

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯ আগষ্ট ২০১৯ (নিজস্ব প্রতিনিধি) : ময়মনসিংহ রেলওয়ে জংশনের ওয়াগন ডিপোতে আগাছায় দেড় যুগ ধরে মালবাহী ওয়াগন সহ রেলের কোটি কোটি টাকার সম্পদ ধ্বংস হচ্ছে। ইয়ার্ড এলাকায় বাউন্ডারী ওয়াল না থাকায় রাতের আধারে চুরি ও খোয়া যাচ্ছে রেল সম্পদ। দীঘৃদিন ধরে পরিস্কার না করায় ওয়াগন ডিপোতে আগাছা জন্মে জঙ্গলে রূপ নিয়েছে। ডেঙ্গু প্রতিরোধে সারাদেশে যখন মশা নিধনে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন অভিযান চলছে। এছাড়া মাদকসেবী, ছিনতাইকারীসহ অপরাধীদের আশ্রয় নেয় এখানে। সেখানে রেলওয়ে ওয়াগন ডিপোতে মশার আশ্রয়স্থল হিসেবে পরিনত হয়েছে। এখানে পরিত্যক্ত এসব রেল সম্পদ বেহাল অবস্থায় পড়ে থাকার কোন সঠিক পরিসংখ্যান খুজে পাওয়া যায়নি। রেলওয়ে সুত্রে জানা যায় আনুমানিক ২ শতাধিক মালবাহী ওয়াগন ও ৩টি কোচ কনডেম হয়ে দেড় যুগ ধরে পড়ে আছে। এব্যাপারে স্টেশন সুপার জহুরুল ইসলাম জানান, ইয়ার্ডে পরিত্যক্ত এসব ওয়াগনসহ রেল যন্ত্রপাতির দেখাশুনার দায়িত্ব প্রধান ট্রেন পরীক্ষক ও প্রকৌশল বিভাগের। কাজেই এব্যাপারে আমি কিছু বলতে পারবো না। এব্যাপারে প্রধান ট্রেন পরীক্ষক আজিজুল হকের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, পরিত্যক্ত ওয়াগন ও কোচ এবং ইয়ার্ড পরিস্কার- পরিছন্ন রাখার দায়িত্ব রেলের প্রকৌশল বিভাগের। এব্যাপারে ময়মনসিংহ রেলওয়ে প্রকৌশল শাখার সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী সুকুমার রায় বলেন এব্যাপারে উপ-সহকারী প্রকৌশলী এর দায়িত্বে আছেন। পরিস্কারের লোক আছে আজকালের মধ্যে পরিস্কার করা হবে। মানুষের মলমুত্র ও বৃস্টির কারণে দ্রুত আগাছা গুলো বেড়ে উঠে। লোকবল সংকটের কারনেও পরিস্কার কিছুটা বিলম্বিত হয়েছে। তিনি বলেন, এই আগাছার চেয়ে বেশী ক্ষতিকর রেলস্টেশনের দুই মাথায় বস্তি থেকে নোংরা ও ময়লা আর্বজনা ফেলে দুর্গন্ধের সৃস্টি করছে। সিটি করপোরেশনকে আমি বিষয়টি জানিয়েছেন। পরিত্যক্ত ওয়াগন ও কোচ রক্ষাবেক্ষনার জন্য আলাদা বিভাগ রয়েছে। এটা তারাই বলতে পারবেন। পরিত্যক্ত গাড়ি বেচাকেনার দাায়িত্ব আমাদের না। পরিত্যক্ত গাড়ির বেচাকেনার দায়িত্ব প্রধান ট্রেন পরীক্ষকের। আমরা প্রকৌশল বিভাগ হচ্ছে রেল লাইনের দেখাশুনা করার দায়িত্ব আমাদের। তবে আমি যতদুর জানি এসব মালামাল নিলামে বিক্রির প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এব্যাপারে বিভাগীয় কমিশনার মোস্তাফিজুর রহমান এনডিসি দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সংশ্লিস্ট বিভাগকে নির্দেশনা দিবেন বলে জানান।