রবিবার, ১৫ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

​আশুলিয়ায় পৃথক দুটি স্থানে ২ নারী পোশাক শ্রমিককে ধর্ষণের অভিযোগ, আটক ২

মুক্তখবর :
আগস্ট ২৯, ২০১৯
news-image

ওবায়দুর রহমান লিটন: ​আশুলিয়ার পৃথক স্থানে দুই নারী পোশাক শ্রমিক ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। উভয় ঘটনায় কারখানার সুপারভাইজারসহ ২ ধর্ষককে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলেন, আশুলিয়ার পবনারটেক এলাকার অটোরিক্সা চালক পলাশ খলিফা। তিনি বড়গুনার সদর উপজেরার মো. দুলালের ছেলে। এবং নরসিংহপুরের হামীম গ্রুপের পোশাক কারখানার সুপারভাইজার মাজেদুল ইসলাম। তিনি খুলনা বাগেরহাটের নুরে আলমের ছেলে। বুধবার রাতে ভুক্তভোগীরা বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় পৃথক দুটি মামলা করেন। আশুলিয়া থানার পুলিশ উপপরিদর্শক (এসআই) মো. ফজিকুল ইসলাম জানান, গত রাতে আশুলিয়ার পবনারটেক এলাকায় হাজী সামাদের বাড়ির ভাড়াটিয়া ভুক্তভোগী পোশাক শ্রমিক প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বের হলে প্রতিবেশী পলাশ খলিফা তাকে জোড়পূর্বক তুলে নিয়ে ধর্ষন করে। এসময় ভুক্তভোগীর চিৎকারে আশেপাশের লোকজন বেরিয়ে এলে অভিযুক্ত পলাশ খলিফা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা আহত অবস্থায় ভুক্তভোগী পোশাক শ্রমিককে স্থানীয় নারি ও শিশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করে। এদিকে, গ্রেফতারকৃত অপর আসামী মাজেদুল ইসলাম ৩ মাস পূর্বে কৌশলে ভুক্তভোগী নারীর নগ্ন ছবি ও ভিডিও মোবাইলে নিয়ে তাকে ব্লাকমেইল করে ধর্ষণ করে এবং হুমকি দিয়ে আসছিলো। ভুক্তভোগীদের শারীরিক পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেলের ওসিসিতে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।