বৃহস্পতিবার, ২৩শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং

যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে যমুনা সার কারখানা প্রায় এক বছর ধরে বন্ধ

মুক্তখবর :
সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯
news-image

ঢাকা, শনিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ (নিজস্ব প্রতিনিধি) : যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে যমুনা সার কারখানা প্রায় এক বছর ধরে বন্ধ রয়েছে। আর যথাযথ সংরক্ষণের অভাবে ১৯ জেলার কৃষকের চাহিদা মেটাতে আমদানি করা সারের গুণগত মান নষ্ট হচ্ছে। গত বছরের ২৭শে নভেম্বর আগুন লাগার পর বন্ধ হয়ে যায় যমুনা সার কারখানার উৎপাদন। দেশের বৃহত্তম এই ইউরিয়া সার কারখানার উৎপাদন ক্ষমতা দিনে ১৭শ মেট্রিক টন। এতে জামালপুর, শেরপুর, টাঙ্গাইল ছাড়াও উত্তরবঙ্গের ১৬ জেলায় সার সরবরাহ ব্যহত হয়। চাহিদা মেটাতে সৌদি আরব, আরব আমিরাত, চীন, কাতারসহ বিভিন্ন দেশ থেকে সার আমদানি করে রাখা হচ্ছে যমুনা সার কারখানায়। পর্যাপ্ত জায়গার অভাবে খোলা জায়গায় রাখা হয়েছে এসব সার। ফলে রোদ-বৃষ্টিতে গুণগতমান নষ্ট হওয়ার পাশাপাশি জমাট বেধে যাচ্ছে। এসব সার জমিতে ব্যবহার করে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন কৃষকেরা। অন্যদিকে কাজ না থাকায় মানবেতর জীবন যাপন করছেন কারখানা সংশ্লিষ্ট কয়েক হাজার শ্রমিক, ট্রাক মালিক, চালক ও হেলপার। কারখানাটি চালু করতে নির্মাতা প্রতিষ্ঠান জাপানের মিতশুবিশি কোম্পানির সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে কারখানাটিতে উৎপাদন শুরু হবে বলে আশার কথা জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।