বুধবার, ২৩শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং

হত্যার পর সিয়ামকে মাটিতে পুঁতে রাখে সৎ মা

মুক্তখবর :
সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯
news-image

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ (নিজস্ব প্রতিনিধি): বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলায় নিখোঁজের দুই দিন পর সিয়াম (৭) নামে এক শিশুর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত শিশু সিয়াম মোরেলগঞ্জ উপজেলার হোগলাবুনিয়া ইউনিয়নের বদনিভাঙ্গা গ্রামের মিরাজ মোল্লার প্রথম সংসারের ছেলে এবং স্থানীয় বিএস রহমাতিয়া দাখিল মাদরাসার শিশু শ্রেণির ছাত্র ছিল। গেল রোববার দুপুর থেকে নিখোঁজ ছিল সিয়াম। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তার সৎমা ফেরদৌসী বেগমকে (২২) আটক করা হয়েছে। মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেএম আজিজুল ইসলাম জানান, গেল রোববার সিয়াম নিখোঁজ হয়। পরিবার তাকে খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। একপর্যায়ে পুলিশের সন্দেহ হলে শিশু সিয়ামের সৎ মা ফেরদৌসী বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে সে সিয়ামকে হত্যার কথা স্বীকার করে।সিয়ামকে হত্যা করে বাথরুমের পাশে মরদেহ পুঁতে রেখেছিল তার সৎ মা। তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী বাথরুমের পাশের গর্ত থেকে সিয়ামের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। সিয়ামের হত্যাকারী সৎ মা ফেরদৌসী বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।