শুক্রবার, ২২শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং

তীব্র স্রোতে ঝুঁকির মুখে চাঁদপুরের নৌ চলাচল

মুক্তখবর :
অক্টোবর ৩, ২০১৯
news-image

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৩ অক্টোবর ২০১৯ (নিজস্ব প্রতিনিধি) : তীব্র স্রোতে উজানের ঢলের পানি নামছে দক্ষিণের সাগরে। ফলে এ সময় চাঁদপুরের তিন নদীর মোহনা বেশ উত্তাল। এতে মূল ভূখন্ড থেকে চরাঞ্চলে যাতায়াতকারী যাত্রীবাহী ট্রলারসহ অন্যান্য নৌযান ঝুঁকির মুখে পড়ছে। এমন পরিস্থিতিতে বাধ্য হয়ে আতঙ্ক নিয়েই এসব নৌযান চলাচল করছে।

ঘূর্ণি স্রোতের তীব্রতা এতোটাই যে, বিশাল আকৃতির পণ্য ও যাত্রীবাহী লঞ্চগুলোকেও থমকে দাঁড়াতে হচ্ছে। চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনা ও ডাকাতিয়া নদীর মোহনায় এখন পরিস্থিতি এরকমই। ফলে মোহনা এলাকায় ঝুঁকি নিয়েই সব ধরনের নৌযানকে পাড়ি দিতে হচ্ছে। এতে সবচে বিপাকে পড়ছে মূল ভূখন্ড থেকে দুর্গম চরাঞ্চলের সঙ্গে যাতায়াতকারী ইঞ্জিনচালিত নৌকা ও ট্রলারগুলো। অনেকেই লাইফ জ্যাকেট ও বয়া ব্যবহার করছেন।

যাত্রীরা বলেন, দোকানের মালামাল আনা নেয়ার জন্য জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আমাদের চলতে হচ্ছে। ভয় ভয় লাগে। তারপরেও যেতে হচ্ছে। এ অবস্থায় নিরাপদ যাতায়াতের জন্য প্রশাসনের সহযোগিতা চেয়েছেন জনপ্রতিনিধি। চাঁদপুর সদরের রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. হযরত আলী বেপারী বলেন, নদীতে উত্তাল ঢেউ হচ্ছে। আমি প্রশাসনের সকল কর্মকর্তাদের কাছে আবেদন জানাচ্ছি ট্রলারগুলোতে যেনো পর্যাপ্ত পরিমাণ লাইফ জ্যাকেট প্রদান করা হয়।

বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন চাঁদপুর সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার কানিজ ফাতেমা জানান, পারাপারের জন্য নৌকার মাঝি ও যাত্রীদের সচেতন করা হচ্ছে। প্রায় ২০০ লাইফ জ্যাকেট বিতরণ করা হয়েছে এবং কার্যক্রমটি চালু রয়েছে। চাঁদপুর ও পাশের শরীয়তপুর জেলার অন্তত ২০টি দুর্গমচরে প্রতিদিন দুই থেকে আড়াই হাজার মানুষ এবং মালামাল নিয়ে ৩০টি ইঞ্জিনচালিত নৌকা ও ট্রলার তিন নদীর ঘূর্ণিস্রোতের মোহনা পাড়ি দেয়।