বুধবার, ১৯শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং

বান্দরবানে ৬ সন্তানের জননীকে গলাকেটে হত্যা

মুক্তখবর :
অক্টোবর ২০, ২০১৯
news-image

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ (নিজস্ব প্রতিনিধি) : বান্দরবানের লামা উপজেলার সদর ইউনিয়নে এক ৬ সন্তানের জননীকে গলাকেটে করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিজ বাড়িতে শয়নকক্ষে খুন হয়েছেন গোলাপী বেগম (৪৮) নামের সেই নারী। তিনি সদর ইউনিয়নের চিউনী খাল পাড়ার মো. শাহজাহানের স্ত্রী। মো. শাহজাহান বলেন, রাতে আমার ছোট মেয়ে আছিয়া বেগম (৪) ও বড় ছেলে মো. জসিমের মেয়ে আমেনা আক্তার (৩) আমার স্ত্রীর সাথে ঘুমিয়েছিল। যে দা দিয়ে আমার স্ত্রীকে জবাই করা হয়েছে সে দা’টি আমার ঘরের। লাশের পাশে দা পড়ে ছিল। এই সংসারে আমার ২ ছেলে ও ৪ মেয়ে। আমি গত কয়েকদিন যাবৎ আমার ছোট স্ত্রী জাহানারা বেগমের (৪৫) সাথে ছিলাম। গতরাতেও সেখানে ঘুমিয়েছি। ভোরে বড় ছেলে মো. জসিম আমাকে খবর দিলে আমি দৌড়ে আসি। বাড়িতে পাশের ঘরে আমার মা ও অন্য সন্তানরা ঘুমিয়েছিল। গোলাপীর বড় ছেলে মো. জসিম বলেন, আমি পাশে আলাদা বাড়িতে স্ত্রী নিয়ে বসবাস করি। সকালে কান্না ও চিৎকারের শব্দ পেয়ে এগিয়ে আসি। আমার মেয়ে আমেনা বেগম রাতে মার সাথে ঘুমিয়েছিল। কি কারণে আমার মাকে খুন করা হয়েছে আমি জানি না।  খুনের ঘটনার খবর পেয়ে সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ অপ্পেলা রাজু নাহা। তিনি খুনের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশের সুরতহাল করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ বান্দরবান জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিন্টু কুমার সেন বলেন, খুনের কারণ এখনো জানা যায়নি।