রবিবার, ১৭ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং

চিলির অস্থিরতাকে ‘যুদ্ধ’ ঘোষণা সরকারের, নিহত ৫

মুক্তখবর :
অক্টোবর ২১, ২০১৯
news-image

ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯ (মুক্তখবর ডেস্ক) : গণপরিবহনে ভাড়া বৃদ্ধি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে তৃতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ হয়েছে ল্যাটিন আমেরিকার দেশ চিলিতে। সেখানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে। উত্তেজিত জনতার একাংশ সান্তিয়াগোর একটি গার্মেন্টস কারখানায় আগুন ধরিয়ে দেয়ার পর প্রাণ হারিয়েছে কমপক্ষে ৫ জন মানুষ। বিক্ষোভের মধ্যে শহরজুড়ে লুটপাটেরও ঘটনা ঘটেছে। গণপরিবহনে ভাড়া বৃদ্ধি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে রাস্তায় নামলেও জনগণ এবার অর্থনৈতিক বৈষম্য ও জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধিরও প্রতিবাদে সরব হচ্ছে। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা বিক্ষোভাকারীদের কাঁদানে গ্যাস ও জলকামান দিয়ে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়ার চেষ্টা চালানো হয়েছে। বাতিল করা হয়েছে সান্তিয়াগো বিমানবন্দরের সব ফ্লাইট। পুরো দেশে প্রায় ১৫’ শ নাগরিককে আটক করা করা হয়েছে। দেশের এ অবস্থাকে যুদ্ধাবস্থা বলে ঘোষণা করেছে দেশটির সরকার। নামানো হয়েছে সেনাবাহিনীও। চিলির স্বৈরশাসক অগাস্তে পিনোশের শাসনামলের পর রাস্তায় সেনা নামানোর ঘটনা এটিই প্রথম। এ বিষয়ে আত্মসমর্থন করে চিলির প্রেসিডেন্ট সেবাস্তিয়ান পিনেরা বলেছেন, শক্তিশালী শত্রুর বিরুদ্ধে আমরা যুদ্ধ করছি, যে শত্রু সীমাহীন সহিংস কর্মকাণ্ড ঘটনার জন্য উন্মুখ হয়ে আছে। গণতন্ত্রকে রক্ষার জন্য গণতন্ত্র আমাদের যা দিয়েছে তা ব্যবহার করতে হবে। যারা এটি ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিতে চায় তাদের আইনের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।