বুধবার, ১৯শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং

অবশেষে সিদ্দিককে ডিভোর্সই দিলেন মিম

মুক্তখবর :
অক্টোবর ২২, ২০১৯
news-image

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯ (বিনোদন রিপোর্টার) : নানা জল্পনা-কল্পনার পর আনুষ্ঠানিকভাবে অভিনেতা সিদ্দিকুর রহমানকে ডিভোর্স দিলেন তার স্ত্রী মডেল-অভিনেত্রী মারিয়া মিম। গত ১৯ অক্টোবর ডিভোর্স পেপারে স্বাক্ষর করেন মিম। আগামী ২৩ অক্টোবর ডিভোর্স পেপার সিদ্দিকের হাতে পৌঁছাবে বলেও জানান এই অভিনেত্রী।

অন্যদিকে মারিয়া মিম তার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে লিখেন, ‘অবশেষে বাধ্য হয়ে বিবাহ বিচ্ছেদের কাগজে স্বাক্ষর করে জমা দিয়েছি। একটা দীর্ঘদিনের বেদনা, কান্না এবং চাপা কষ্ট সবকিছু নিয়ে সিদ্দিকুর রহমানের সাথে আমি আমার সম্পর্ক ছিন্ন করেছি।’

ভালোবেসে ঘর বেঁধেছিলেন অভিনেতা সিদ্দিকুর রহমান ও মডেল-অভিনেত্রী মারিয়া মিম। এ সংসারে তাদের একটি পুত্রসন্তান রয়েছে। কিন্তু অনেক কারণে একজন আরেকজনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারছেন না। মিম চান শোবিজে কাজ করতে। কিন্তু সিদ্দিকের এতে আপত্তি। মিমকে নানাভাবে বাধা দিচ্ছেন তিনি। তার ভাষায়, ‘কিছুদিন আগে একটি বিজ্ঞাপনে কাজ করার কথা ছিল। পরিচালক জানিয়েছিলেন, কয়েক দিন পর শুটিং হবে। সে অনুযায়ী প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। হঠাৎ জানতে পারি, আমার পরিবর্তে অন্য এক মডেলকে নেওয়া হয়েছে। এই বিজ্ঞাপনের নির্মাতা রানা মাসুদকে সিদ্দিক প্রভাবিত করেছে, যাতে আমাকে বাদ দেওয়া হয়।’

২০১২ সালের ২৪ মে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত স্পেনের নাগরিক মারিয়া মিমকে বিয়ে করেন সিদ্দিক। ২০১৩ সালের ২৫ জুন তাদের সংসার আলো করে আসে পুত্রসন্তান আরশ হোসেন। কিন্তু গত কয়েক মাস ধরে তাদের মধ্যে দূরত্ব বেড়েছে। বাধ্য হয়ে তিন মাস ধরে আলাদা থাকছেন মিম-সিদ্দিক। পুত্র আরশ এখন সিদ্দিকের সঙ্গে থাকছে।

পুত্র আরশের সঙ্গে দেখা করতে দেন না বলে দাবি করেছেন মিম। এ বিষয়ে মিম ফেসবুকে লিখেছেন—আমাদের সেপারেশনের পর থেকে সিদ্দিকুর রহমান আমার একমাত্র আদরের সন্তান আরশ হোসাইনের সাথে দেখা করতে দেয় না এবং কথাও বলতে দেয় না। এজন্য আমি সিদ্দিকুর রহমানকে লিগ্যাল নোটিশ পাঠাব যেন আমার বাচ্চা আমার কাছে থাকে। একমাত্র মা জানে তার সন্তানের সাথে দেখা না করার, কথা না বলা কতটা কষ্টের এবং দুঃখের।