বুধবার, ১৩ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং

হাজারো কারাবন্দিসহ মুক্ত হলেন ব্রাজিলের আলোচিত সাবেক প্রেসিডেন্ট

মুক্তখবর :
নভেম্বর ৯, ২০১৯
news-image

ঢাকা, শনিবার, ০৯ নভেম্বর ২০১৯ (মুক্তখবর ডেস্ক): ১৮ মাস কারাগারে থাকার পর মুক্ত হলেন ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট লুয়িজ ইনাসিও লুলা ডা সিলভা। এর আগে ব্রাজিলে অপরাধীদের কারাবরণের ক্ষেত্রে কিছু বিধিবিধান বাতিলের জন্য রায় দেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। রায়ের পরই কয়েক হাজার বন্দিসহ মুক্ত হলেন লুলা ডা সিলভা। আজ শনিবার সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ খবর জানা গেছে। এর আগে ব্রাজিলের উচ্চ আদালত মত দিয়েছিল, আপিলের সুযোগ শেষ হওয়ার আগে দোষী সাব্যস্ত অপরাধীদের কারাগারে পাঠানো যাবে না। বিষয়টি কার্যকরের ফলে হাজার হাজার বন্দিসহ সুবিধা পেলেন সাবেক প্রেসিডেন্ট লুলাও। ব্রাজিলের পারানা রাজ্যের কুরিতিবা শহরের একটি কারাগারে বন্দি ছিলেন লুলা। কারাগার থেকে মুক্ত হয়েই সমর্থকদের উদ্দেশে আঙুল দিয়ে বিজয় চিহ্ন দেখান তিনি। এ সময় জনতার উদ্দেশে লুলা বলেন, ‘বাইরে বৃষ্টি অথবা তাপমাত্রা ৪০ যাই হোক না কেন, ৫৮০ দিন ধরে শুভ সকাল, শুভ বিকেল, শুভ রাত্রি বলে চিৎকার করেছি। আমি ভাবতে পারিনি যে, এখানে নারী-পুরুষের সঙ্গে কথা বলতে পারব।’ এ সময় নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করার প্রতিশ্রুতি দেন লুলা। বামপন্থী লুলা ২০০৩ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত ব্রাজিলের নেতৃত্বে ছিলেন। গত বছরেও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন তিনি। কিন্তু একটি বড় ধরনের দুর্নীতির অভিযোগে তাঁকে কারাবরণ করতে হয়। এর ফলে ডানপন্থী বলসোনারো সহজেই নির্বাচনে জয়লাভ করেন। ২০০৩ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট থাকাকালে রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি পেট্রোব্রাসকে কাজ পাইয়ে দেওয়ার শর্তে বিরাট অঙ্কের ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ আনা হয় লুলার বিরুদ্ধে। এরপরই ১৩ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয় তাঁকে। যদিও লুলার দাবি, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।