রবিবার,৯ই আগস্ট, ২০২০ ইং

গোপালগঞ্জে জমির বিরোধে সৎমাকে ‘পিটিয়ে’ হত্যা, আটক ৪

মুক্তখবর :
জুলাই ৫, ২০২০
news-image

ঢাকা, রোববার, ০৫ জুলাই ২০২০ (নিজস্ব প্রতিনিধি): গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় জমির বিরোধে সৎমাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে চারজনকে আটক করেছে পুলিশ। কোটালীপাড়া থানার ওসি শেখ লুৎফর রহমান জানান, শনিবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কলসুম বেগম (৬০) নামে এই বৃদ্ধা মারা যান। কলসুম কোটালীপাড়া উপজেলার রাজিন্দারপাড় গ্রামের সবর আলী সিকদারের দ্বিতীয় স্ত্রী।কলসুম বেগমের ভাই কালাম ফকির অভিযোগ করেন, সৎ ছেলেদের সঙ্গে জমিজমা নিয়ে কলসুমের বিরোধ চলছিল। এর জেরে শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কয়েকজন সৎ ছেলে ও তাদের  স্ত্রীরা কুলসুমকে পিটিয়ে আহত করে। পরে তার গায়ে গরমপানি ঢেলে ও শুকনা মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে দেয়। কলসুমের দুই ছেলে ও ছেলের বউ তাকে উদ্ধার করতে গেলে তাদেরও মারধর করা হয়। তাদের শরীরেও গরম পানি ঢেলে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে দেওয়া হয়। পরে তার বোন খবর পেয়ে কলসুমকে উদ্ধার করে প্রথম কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, পরে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতাল ও বিকেলে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে রাত সাড়ে ৮টার দিকে তিনি মারা যান। ওসি লুৎফর রহমান বলেন, এ ঘটনায় শনিবার রাতেই সাতজনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। রাতেই অভিযান চালিয়ে এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে চার নারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। “প্রাথমিক তদন্তে ধারনা করা হচ্ছে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে হত্যাকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটেছে।” তদন্ত করে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।