বৃহস্পতিবার,১৩ই আগস্ট, ২০২০ ইং

৮৬ বছর পর হাইয়া সোফিয়ায় আজান

মুক্তখবর :
জুলাই ১১, ২০২০
news-image

ঢাকা, শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০ (মুক্তখবর ডেস্ক): তুরস্কের এক আদালতের রায়ের পর ইস্তাম্বুলের খ্যাতনামা হাইয়া সোফিয়ায় আজান দেয়া হয়েছে। এর আগে সাবেক এই গির্জাকে জাদুঘরে পরিণত করা ঠিক ছিল না বলে রায় দেয় তুর্কি আদালত। খবর বিবিসির।  এরপরই তুরস্কের ইসলামপন্থী সরকারের প্রেসিডেন্ট রেচেপ তায়েপ এরদোয়ান এটিকে মসজিদ বানানোর এক বিতর্কিত আদেশে সই করেছেন। দেড় হাজার বছরের পুরনো হাইয়া সোফিয়া এক সময় ছিল বিশ্বের সবচেয়ে বড় গির্জা। পরে তা পরিণত হয় মসজিদে, তারও পর একে জাদুঘরে রূপান্তরিত করা হয়। রাশিয়ার অর্থোডক্স চার্চ তুর্কি আদালতের এই সিদ্ধান্তের নিন্দা জানিয়েছে। এদিকে এরদোয়ান বলছেন, আদালতের রায়ের পর নামাজ পড়ার জন্য হাইয়া সোফিয়াকে খুলে দেয়া হবে। হাইয়া সোফিয়ার গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় এবং রাজনৈতিক তাৎপর্য রয়েছে।টুইটারে এক পোস্টে এরদোয়ান জানান, হাইয়া সোফিয়ার সম্পত্তি ‘দিয়ামাত’ বা তুর্কী ধর্মীয় বিষয়ক দপ্তরের হাতে সোপর্দ করা হবে। এরপরই ৮৬ বছর হাইয়া সোফিয়াতে প্রথমবারের মতো আজান দেয়া হয়। সরকারের কট্টরপন্থী সমর্থক ‘হাবার টিভি’সহ অন্যান্য টেলিভিশন চ্যানেলে এই দৃশ্য সম্প্রচার করা হয়। উল্লেখ্য, দেড় হাজার বছর আগে ক্যাথেড্রাল হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা হয়েছিল হাগিয়া সোফিয়াকে। তবে অটোমানরা এটিকে মসজিদে রূপান্তর করে। কিন্তু পরে ১৯৩৪ সালে এটিকে জাদুঘরে রূপান্তর করা হয়।