সোমবার,১০ই আগস্ট, ২০২০ ইং

তিতাসে এলজিইডি সড়কে পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা

মুক্তখবর :
জুলাই ১৩, ২০২০
news-image

মোঃ আলমগীর হোসেন, তিতাস (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:
কুমিল্লা উত্তরের তিতাস উপজেলার গাজীপুর হতে জগতপুর এলজিইডি সড়কের করুন অবস্থা। পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় রাস্তায় সৃষ্ট খানাখন্দে সামান্য বৃষ্টিতেই জমে যায় হাঁটুপানি। এতে করে এই সড়কে যাতায়াতকারী জনসাধারণতে পোহাতে হচ্ছে চরম দুর্ভোগ। এছাড়াও সড়কের এমন অবস্থায় প্রতিদিনই ঘটছে ছোট-খাটো দুর্ঘটনা। অপরদিকে যাত্রীদেরও গুণতে হচ্ছে অতিরীক্ত ভাড়া। সড়কে সৃষ্ট খানাখন্দের কারণে এই সড়কে চলাচলকারী সিএনজিচালিত অটোরিক্সাসহ অন্যান্য যানবাহনগুলো প্রায় প্রতিদিনই করাতে হচ্ছে মেরামত। ফলে চালক ও মালিকদেরও দৈনন্দিন গুণতে হচ্ছে বাড়তি ব্যয়। এই সড়কে নিয়মিত চলাচলকারী সিএনজিচালিত অটোরিক্সা চালক আব্দুল মতিন বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে দৈনন্দিন যাত্রী কমে যাওয়া এবং সড়কের এমন অবস্থায় আমাদের আয়-রোজগার কমে গেছে। এমন অবস্থায় পরিবার নিয়ে কোনরকম বেঁচে থাকলেও সড়কের এই খারাপ অবস্থার কারণে প্রতিদিনই আমাদের গাড়ী মেরামত খরচ বেড়ে যায়। এসময় সড়কটি দ্রুত মেরামতের জন্য স্থানীয় এমপি ও প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি। স্থানীয় জনসাধারণ সাংবাদিকদের জানান, বিগত কয়েক বছর ধরে গাজীপুর হইতে সাগরফেনা পর্যন্ত ১ কি.মি সড়কের খুবই খাারাপ অবস্থা। এদিকে সাগরফেনা হইতে ২য় দশানীপাড়া ব্রিজ পর্যন্ত রাস্তার দুপাশ ভেঙে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে এবং দিনদিনই এর অবস্থার অবনতি হচ্ছে। এই বিষয়য়ে স্থানীয় ২নং জগতপুর ইউপি চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান বলেন, জনগণের চলাচলের সুবিধার্থে পরিষদের উদ্যোগে রাস্তায় মাটি ভরাটের কাজ চলছে। উপজেলা প্রকৌশলী মুহিব উল্লাহ বলেন, সড়কটির ১ম ১ কি.মি অংশ টেন্ডার হয়েছিল, কিন্তু কোন ঠিকাদার টেন্ডারে অংশগ্রহণ না করায় সড়কটি মেরামত করা সম্ভব হয়নি। নতুন করে ওই ১কিমি. ছাড়াও সম্প্রতি ক্ষতিগ্রস্থ বাকী অংশসসহ এই অর্থ বছরে টেন্ডার করার প্রস্তাব পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। আশাকরি টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে চলতি অর্থ বছরে সড়কটির মেরামত কাজ সম্পন্ন হতে পারে।