শনিবার,২৪শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কুমিল্লা বুড়িচংয়ে প্রধানমন্ত্রীর ছবি দিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে যুবক গ্রেফতর

মুক্তখবর :
জুলাই ২৪, ২০১৯
news-image

বুড়িচং (কুমিল্লা) প্রতিনিধি: ফেইসবুকে প্রধানমন্ত্রীর বিকৃত ছবি দিয়ে পদ্মা সেতু নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে কুমিল্লায় মোঃ শামিম হোসেন (২৭) নামের এক ব্যক্তি কে আটক করেছে কুমিল্লা জেলা পুলিশ।বুধবার ভোর ৬টার দিকে কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার নাজিরা বাজার থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। আটককৃত শামিম লক্ষিপুর জেলার রায়পুর থানার রাঘালিয়া কলকোপা মুন্সিবাড়ির মৃত ওজিউল্লার ছেলে। বর্তমানে বুড়িচং উপজেলার নাজিরা বাজারে থাকে সে।পদ্মা সেতু গুজব ছড়ানোর অভিযোগে এ নিয়ে কুমিল্লায় তিন জনকে আটক করে আইনশৃংখলা বহিনী। বুধবার সকালে কুমিল্লা পুলিশ সুপার কর্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে শামিম কে আটকের বিষয়টি জানান কুমিল্লা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম। উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন, তানভীর সালেহীন ইমন ও শাখাওয়াত হোসেন সহ জেলা পুলিশের উর্দ্দতন কর্মকর্তাবৃন্দ।তিনি সাংবাদিকদের জানান, ফেইসবুকে প্রধানমন্ত্রী ও সড়ক পরিবহন মন্ত্রী বিকৃত ছবি দিয়ে পদ্মা সেতু নিয়ে গুজব ছড়ায়। ‘এম ডি শামিম ’ নামের ফেইসবুক আইডি থেকে ‘মাথা কেটে নিচ্ছে নিরিহ মানুষের’ পদ্মা সেতু নির্মানের জন্য মাথা লাগবেই, এরকম পোস্ট দেয় শামিম, তিনি জানান, বিসয়টি নজরে আসলে জেলার সাইবার ক্রাইম ইউনিট শামিম কে আটক করে। তাকে আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে পদ্মা সেতু নিয়ে ফেইসবুকে গুজব ছড়ানোর বিষয়টি শিকার করে সে, তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি উদ্ধার করে পুলিশ, সেটিতে গুজব ছড়ানোর তথ্য প্রমান পাওয়া গেছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান তিনি।ছেলেধরা গুজবের বিষয়ে সকলকে সচেতন করতে কর্মসূচী হাতে নিয়েছে কুমিল্লা জেলা পুলিশ। পুলিশ সুপার জানান, পদ্মা সেতু নির্মাণের লক্ষ্যে মানুষের মাথা খুব প্রয়োজন এবং মানুষের মাথা কেটে নেওয়া হচ্ছে এবং এটিকে কেন্দ্র করে দেশের উন্নয়ন, শান্তি ও সম্প্রীতি বিনষ্ট করাছে একটি কুচক্রি মহল বিভিন্ন সময়ে বিভ্রান্তিকর গুজব তৈরি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে দেশের জনগনের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টিসহ জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করে আসছে। সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কয়েকটি অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটেছে। অনেক রিপরাধ মানুষ হামলা ও আক্রমনের শিকার হচ্ছে, এ গুজব থেকে সচেতন করতে মাইকিং, প্রচারপ্রত্র বিলি এবং সংবাদপত্রের মাধ্যমে সকলকে সচেতন করার উদ্যেগ নিয়েছে জেলা পুলিশ।