বৃহস্পতিবার,২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দৌলতপুরে প্রবাসীদের বাড়িতে লাল পতাকা

মুক্তখবর :
মার্চ ২৩, ২০২০
news-image

দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে প্রবাসীদের বাড়িতে বাড়িতে লাল পতাকা উড়ানো হয়েছে। সাধারণ মানুষ যাতেকরে বুঝতে পারে লাল পতাকা উড়ানো বাড়িতে বিদেশ ফেরত মানুষ বা কেউ রয়েছেন। দৌলতপুরের বিভিন্ন এলাকার বিদেশ ফেরতদের বাড়ি চিহ্নিত করে তাদের বাড়িতে দৌলতপুর থানা পুলিশ লাল পতাকা উড়িয়েছেন। এতেকরে সহজেই বুঝা যাচ্ছে প্রবাসী বা বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের বাড়ি বা বিদেশ ফেরত ব্যক্তি হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন কিনা। উপজেলার মহিষকুন্ডি, ভাগজোত, প্রাগপুর, আদাবাড়িয়া, তেকালা, ধর্মদহ, শেহালা, বোয়লিয়া, খলিশাকুন্ডি, বড়গাংদিয়া, দৌলতপুর ও মথুরাপুরসহ দৌলতপুরের ১৪ ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার বিদেশ ফেরত ৭৮জন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তিদের বাড়িতে লাল পতাকা উড়ানো বা লাগানো হয়েছে। যারা সার্বক্ষনিক প্রশাসনের নজরদারিতে আছেন। দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার ও দৌলতপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আজগর আলী শনিবার উপজেলা বিভিন্ন এলাকায় বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের সতর্ক ও সচেতন করেছেন। তারা যেন কোনভাবেই ঘরের বাইরে বের না হ’ন এবং হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকেন বা মেনে চলেন। এছাড়াও দৌলতপুরের ১৪ ইউনিয়নের ১৪জন অফিসারকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ৭৮জন বিদেশ ফেরত ব্যক্তি হোম কোয়ারেন্টাইন মানছেন কিনা তা তদারকি করার জন্য। অপরদিকে দৌলতপুরের ৪৬ কি. মি. সীমান্তের প্রায় অর্ধেক সীমান্ত এলাকায় উন্মুক্ত রয়েছে যেখানে ভারত সীমান্তে কাটাতারের বেড়া নেই। এই উন্মুক্ত সীমান্ত দিয়ে ভারতের কেরালা রাজ্যে অবৈধভাবে শ্রম দিতে যাওয়া দৌলতপুর সীমান্ত এলাকার চরাঞ্চলের খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষের অনেকে রয়েছেন তারা এখন অবৈধভাবে বাংলাদেশে প্রবেশের চেষ্টা করছেন এবং অনেকে প্রবেশও করেছেন। ভারতের কেরালা রাজ্য থেকে বাংলাদেশীসহ বিদেশীদের বের করে দেওয়া হলে বাংলাদেশীদের অনেকেই দৌলতপুর সীমান্তের ওপার ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গী থানা ও নদীয়া জেলার হোগলবাড়িয়া থানার বিভিন্ন এলাকার সীমান্ত সংলগ্ন গ্রামে অবস্থান করছেন। সুযোগ পেলেই তারা অবৈধভাবে বাংলাদেশে প্রবেশ করার সম্ভাবনা রয়েছে বলে সীমান্ত সংলগ্ন গ্রামবাসী সূত্রে জানিয়েছে। দু’দিন আগে অবৈধভাবে ভারত থেকে আসা ৩জন বাংলাদেশীকে চিহ্নিত করে তাদের বাড়িতে লাল পতাকা উড়িয়েছে পুলিশ। ভারত থেকে আসা বাংলাদেশীদের বিষয়ে সীমান্ত সংলগ্ন রামকৃষ্ণপুর ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজ মন্ডল জানান, তার ইউনিয়নের ভারতের কেরালা থেকে আসা ৩জনকে চিহ্নিত করে দৌলতপুর থানা পুলিশকে জানানো হলে পুলিশ তাদের বাড়িতে লাল পতাকা উড়িয়ে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। এবিষয়ে দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার বলেন, সীমান্তে কড়া নজরদারি করার জন্য বিজিবিকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে এবং তারা সতর্ক অবস্থানে রয়েছেন। এছাড়াও দৌলতপুরে ৭৮জন বিদেশ ফেরত ব্যক্তি হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। তাদের সার্বক্ষনিক নজরদারিতে রাখা হয়েছে।