বুধবার,২৩শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ফোন পেলেই বাড়ি বাড়ি গিয়ে ত্রাণ সামগ্রী পৌছে দিচ্ছেন নবাবগঞ্জের ইউএনও

মুক্তখবর :
এপ্রিল ১৩, ২০২০
news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক: সারা দেশে করোনা ভাইরাসে জনজীবনে নেমে এসেছে দুর্ভোগ, অভাব-অনটন। এর থেকে নবাবগঞ্জবাসীকে রক্ষা করতে সরকারের নির্দেশনা যথাযথভাবে বাস্তবায়নে দিন-রাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এইচ এম সালাউদ্দিন মনজু। মোবাইল ফোনকল পেলেই পাড়া মহল্লায় ত্রাণ নিয়ে ছুটে যান ওই কর্মকর্তা। শনিবার সকাল থেকে মঙ্গলবার বিকাল পর্যন্ত মোবাইল ফোনের কললিস্ট এবং ফেসবুকের কমেন্ট বক্সেও সূত্রধরে ৬১৩টি পরিবার সরকারী বিভিন্ন সুবিধা বঞ্চিত অসহায়, হতদরিদ্র, কর্মহীন পরিবারের মধ্যে ত্রাণসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন তিনি। সরেজমিন দেখা যায়, সকাল থেকে সন্ধ্যা, সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ইউএনও সালাউদ্দিন তার নিজস্ব গাড়িতে করে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ত্রাণ পৌঁছে দিচ্ছেন। দিনের বেলায় যতক্ষণ অফিস থাকেন, ওই সময় কখনও করোনাসংক্রান্ত সচেতনতামূলক মিটিং, কখনও অফিসে আগত অসহায় মানুষকে ত্রাণ বিতরণ, আবার কখনও কখনও রাস্তায় টহলে ব্যস্ত থাকতেন ওই ইউএনও। ইউএনও এইচ এম সালাউদ্দিন মনজু তার নিজস্ব ফেসবুক আইডিতে স্ট্যাটাস দিয়ে বলেন, প্রিয় নবাবগঞ্জবাসী ‘আপনাদের সম্মানের প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল। আপনারা অবগত আছেন বাংলাদেশ সরকারের নিদের্শনা মোতাবেক সরকারী বরাদ্দ এবং স্থানীয় সংসদ সদস্য, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারী শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা জনাব সালমান ফজলুর রহমান এমপি মহোদয়ের সহযোগিতায় করোনার কারণে বর্তমান করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে পরিস্থিতিতে আপনি কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। মানুষের ঘরে ঘরে উপজেলা প্রশাসন খাদ্য সহায়তা পৌছে দিচ্ছি । আপনার জানামতে বিভিন্ন ক্যাটাগরির এমন কোন ব্যক্তি যদি থাকেন যার ঘরে খাবার নাই কিংবা তারা কাহার নিকট বলতে পারছেন না, সহায়তা নিতে বিব্রতবোধ করছেন তাদের নাম ঠিকানা মোবাইল নম্বর অনুগ্রহ করে ইউএনও তার নিজস্ব ফেসবুক আইডি কমেন্টবক্স কিংবা ০১৯১৩৭৪৬৪১৯,০১৫১৫২১৫৩৫০ ফোন নম্বরে যোগাযোগ করার অনুরোধ করছি। পরিচয় গোপন রেখে প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা আপনার বাসায় পৌঁছে দেব।’ গত এক সপ্তাহে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে বহু অসহায় পরিবার , কর্মহীন পরিবারের মাঝে নিজে ত্রাণ পৌঁছে দেন ইউএনও। এভাবে গত চার দিনে বহু পরিবারের মাঝে তিনি নিজেই ত্রাণসামগ্রী পৌঁছে দিয়ে অসহায় পরিবারে মাঝে হাসি ফুটিয়েছেন। এ ছাড়া বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি সহায়তায় উপজেলার ১৫ হাজারের অধিক পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন । চুরাইন উনিয়নের, মুন্সিনগর বাসিন্দা নূর হোসেন ,রোকেয়া খাতুন,সিরাজ মিয়া ও আতর আলী বলেন, আমার এক পরিচিত সাংবাদিক ভাইদের মাধ্যমে ইউএনও তার সরকারি ফোনে নাম, ঠিকানা দেওয়ার ১ দিন পরে ত্রান সামগ্রী নিয়ে হাজির । এমন দৃশ্য দেখে আনন্দে কান্না চলে আসলো । একজন সরকারি কর্মকর্তার এমন মানবিকতা দেখে আমাদের চোখে পানি এসে যায়। ত্রাণ পেয়ে তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারী শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা জনাব সালমান ফজলুর রহমান, ইউএনও এইচ এম সালাউদ্দিন মনজু এবং তার সহযোগী পুলিশ সদসদের জন্যে দোয়া করেন।