শনিবার,১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

বামনায় সিফাতের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিচার্জ

মুক্তখবর :
আগস্ট ৯, ২০২০
news-image

এম.এ মতিন আকন্দ: গত ৩১ জুলাই পুলিশের গুলিতে নিহত সাবেক মেজর সিনহা মোঃ রাশেদ খানের সাথে একই গাড়িতে ছিলেন তাঁর ব্যক্তিগত ইউটিউব চ্যানেলের ক্যামেরা ম্যান সাহেদুল ইসলাম সিফাত (২২)। সিফাতের নিজ বাড়ি বরগুনা জেলার বামনা উপজেলায়। তিনি পড়াশুনা করতেন স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ফিল্ম এন্ড মিডিয়া বিভাগে। মিথ্যে অভিযোগে সিফাতকে কারাগারে আটক রাখার বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা প্রকাশ করে গতকাল স্থানীয় মানুষজন ও সিফাতের সহপাঠীরা মানববন্ধন শুরু করলে পুলিশ এসে মাইক এবং ব্যানার ছিনিয়ে নেয়। তা সত্ত্বেও সিফাতের বন্ধুরা মানকববন্ধন চালিয়ে গেলে পুলিশ ফের লাঠিচার্জ করে এবং ফলস্বরূপ ৩ জন শিক্ষার্থী গুরুতরভাবে আহত হয়। গতকাল শনিবার দুপুর ১২ টায় উপজেলার কলেজ রোডে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন- “আমরা আমাদের বন্ধুর মুক্তির জন্যে মানকববন্ধনে দাঁড়িয়েছি এবং আমরা যথেষ্ট শান্তিপূর্ণভাবেই মানববন্ধন করছিলাম। এর আগেও আমরা মানকববন্ধনের জন্যে প্রশাসনকে জানালে তখন তারা বাধা প্রদান করে। গতকাল যখন সবকিছু উপেক্ষা করে আমরা মানবকববন্ধনে দাঁড়ালাম তখন প্রথমে পুলিশ এসে ব্যানার, মাইক ছিনিয়ে নেয় এবং পরবর্তীতে আমাদের উপরে লাঠিচার্জ করে।