মঙ্গলবার,২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শ্রীলংকায় চোখ রুবেলের

মুক্তখবর :
আগস্ট ২৪, ২০২০
news-image

ঢাকা, সোমবার, ২৪ আগষ্ট ২০২০ (ক্রীড়া প্রতিবেদক): গত মাস থেকে ক্রিকেট চর্চা শুরু হয়েছে বাংলাদেশে। বিসিবির তত্ত্বাবধানে জাতীয় দলের কয়েক ক্রিকেটার একক অনুশীলন শুরু করেন। কোরবানির ঈদের পর সে সংখ্যা বেড়েছে। দেশের পাঁচ ভেন্যুতে (ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, খুলনা ও রাজশাহী) নিয়মিত অনুশীলন করছেন মুশফিক, তামিম, মোস্তাফিজরা। তাদের সঙ্গে এবার একক অনুশীলনে যোগ দিয়েছেন রুবেল হোসেন। জাতীয় দলের এই পেসার ২-৩ দিন আগে বাগেরহাট থেকে ঢাকায় এসেছেন। ফিটনেসের পাশাপাশি বোলিং নিয়ে কাজ করছেন তিনি।

গতকাল অনুশীলন শেষে রুবেল হোসেন বলেন, ‘গত পরশু থেকে আমি মিরপুরে, যেটা আমাদের সবার প্রিয় গ্রাউন্ড সেখানে অনুশীলন শুরু করেছি। মূলত ফিটনেসের সঙ্গে বোলিং। আমি বাগেরহাটে বোলিং নিয়ে কাজ করতে পারিনি। এখানে বোলিং নিয়ে কাজ করছি। ক্রিকেট বোর্ডের নির্দেশনা অনুযায়ী বোলিং, ফিটনেস, জিম- সবকিছুই আমরা নিয়ম অনুসারে করছি। তারা খুব সুন্দরভাবে আমাদের একটা পরিকল্পনা তৈরি করে দিয়েছে। এজন্য আমি বিসিবিকে ধন্যবাদ জানাই। সেই পরিকল্পনা মতোই আমরা সবাই সুন্দরভাবে ফিটনেস, বোলিং, ব্যাটিং নিয়ে কাজ করছি।’ মার্চে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে গেলে অনির্দিষ্টকালের জন্য দেশের ক্রিকেট বন্ধ ঘোষণা করেছিল বিসিবি। এর পর থেকেই ক্রিকেটাররা ঘরবন্দি ছিলেন। তবে বিসিবির পাঠানো গাইডলাইন অনুসরণ করেছেন তারা। বাসায় ফিটনেস নিয়ে টুকটাক কাজ করেছেন। পেসাররা অবশ্য বোলিং নিয়ে সেভাবে কাজ করতে পারেননি।

রুবেল জানালেন, বাগেরহাটে ফিটনেস নিয়েই বেশি কাজ করেছেন তিনি। অভিজ্ঞ এই পেসার বালুতে রানিং করেছেন নিয়মিত। রুবেল বলেন, ‘করোনা আমাদের দেশে যখন খারাপভাবে হানা দিচ্ছিল, তখন ক্রিকেটারদের করার কিছুই ছিল না। আমরা যার যার জেলায় চলে গিয়েছিলাম এবং নিজেদের মতো ফিটনেস নিয়ে কাজ করেছি। বাগেরহাটে আমি ফিটনেস নিয়েই কাজ করেছি, রানিং করেছি। যেহেতু আমার বাসা নদীর পারে সেহেতু বালুতেই আমি বেশি রানিং করেছি। বোলিং, ব্যাটিংয়ের সুযোগ আমি পাইনি। আর প্রতিদিনই বৃষ্টি হচ্ছিল। করোনা ইস্যুটা আসলে আমাদের হাতে নেই, বিশ্বব্যাপী এটা মহামারী আকার ধারণ করেছে। আমাদের কিছু করার নেই। তার পরও যতটুকু থাকা যায়, সচেতন থাকার চেষ্টা করেছি। বিসিবি থেকে যেসব নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে, সেভাবেই ফিটনেস নিয়ে কাজ করেছি।’

করোনা পরবর্তী-শ্রীলংকা সফর দিয়ে আবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরবে বাংলাদেশ। সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচ খেলতে কলম্বো যাবে দল। আসন্ন এ সিরিজ নিয়ে দারুণ আশাবাদী রুবেল হোসেন। শ্রীলংকা সফরকে পাখির চোখ করেছেন এ পেসার। তিনি বলেন, ‘ইংল্যান্ডে খেলা শুরু হয়েছে। পাকিস্তানও খেলছে তাদের সঙ্গে। আমরাও আশাবাদী, সামনে শ্রীলংকার বিপক্ষে একটি সিরিজ আছে। আশা করি, খুব সুন্দরভাবে সিরিজটি হবে। মূলত আমার নজর শ্রীলংকা সিরিজে। লক্ষ থাকবে দলে সুযোগ পাওয়া, আর সুযোগ পেলে ভালো খেলার চেষ্টা করব। আমি সে অনুযায়ী অনুশীলন করছি। ফিটনেস বলেন, বোলিং বলেন; আরও কীভাবে স্কিল বাড়ানো যায়- এটা নিয়ে কাজ করছি।’