শনিবার,১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

বেড়েই চলেছে পেঁয়াজের ঝাঁজ

মুক্তখবর :
সেপ্টেম্বর ১২, ২০২০
news-image

বেড়েই চলেছে পেঁয়াজের ঝাঁজ। দুই সপ্তাহের ব্যবধানে প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজের দাম ২৫ থেকে ৩০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৭০ টাকায়। পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণে এখনই কঠোর মনিটরিংয়ের দাবি জানিয়েছেন ক্রেতারা। এদিকে বাজারে মরিচসহ সব ধরনের সবজির দাম কমেছে। দুই সপ্তাহ আগে প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ পাইকারি বিক্রি হতো ৩৫ থেকে ৪০ টাকায়। আর বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৬৫ টাকায়। খুচরা বাজারে তা গিয়ে ঠেকেছে ৭০ টাকায়। পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির জন্য আড়ৎদাররা মোকামকে দায়ী করছেন। আড়ৎদাররা জানান, পাবনা, রাজশাহী মোকামে পেঁয়াজ ৫৭ টাকায় কেনা পড়ে। প্রতি কেজি ৬০ টাকায় বিক্রি না করলে আমাদের লাভ হয় না। বন্যার কারণে পেঁয়াজ সব নষ্ট হয়ে গেছে। পুরোনো যে পেঁয়াজ রয়েছে সেগুলো দিয়ে চলছে। আর এর জন্য দাম বেশি। সরবরাহ স্বাভাবিক থাকার পরও পেঁয়াজের দাম নিয়ে কারসাজি বন্ধের দাবি জানিয়েছেন ভোক্তারা। ভোক্তারা জানান, একপাল্লা পেঁয়াজ কিনেছি ১৬০ টাকা থেকে ১৮০ টাকায়। এখন বাজারে এসে দেখি পেঁয়াজ ২৯০-৩০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এদিকে দাম কমতে শুরু করেছে সব ধরনের সবজির। ১০ টাকা কমে প্রতি কেজি পেঁপে বিক্রি হচ্ছে ২৫ থেকে ৩০ টাকায়। সপ্তাহের ব্যবধানে পটল, বরবটি, বেগুন, চিচিঙ্গার দাম কমেছে কেজি প্রতি ২০ টাকা। গেল সপ্তাহে কাঁচামরিচ ২০০ থেকে ২২০ টাকায় বিক্রি হলেও এখন ১৫০ থেকে ১৬০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে। অপরিবর্তিত আছে মাংসের দাম। মাছের বাজারে বড় বড় ইলিশের দেখা মিলছে। বিক্রি হচ্ছে আটশ থেকে নয়শ টাকা কেজি দরে। অন্যান্য মাছ আগের দরেই বিক্রি হতে দেখা গেছে।