শুক্রবার,৩০শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে হাত-পা বেঁধে চাচীকে ধর্ষণ, ২ ভাতিজা আটক

মুক্তখবর :
অক্টোবর ১৭, ২০২০
news-image

ঢাকা, শনিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২০ (নিজস্ব প্রতিনিধি): চাঁদপুর ফরিদগঞ্জে দুই ভাতিজা কর্তৃক চাচীকে হাত- পা বেঁধে ধর্ষণ ও মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারনের গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে। ন্যাক্কার জনক এ ঘটনাটি ঘটেছে ফরিদগঞ্জে পৌরসভার ভাটিরগাঁও গ্রামে। র‍্যাব ও পুলিশ উক্ত ঘটনায় দুই ধর্ষক জহিরুল ইসলাম নুরু(৩০) ও মো.আব্দুর রহমান রাজিবকে (২৮) আটক করেছে। পুলিশ জানায়, গৃহবধূর স্বামী গত ৯ জুলাই, বৃহস্পতিবার রাতে এশার নামাজ পড়তে যাওয়ার পরে গৃহবধূ তার একমাত্র ছেলের সঙ্গে মোবাইলে কথা বলার সময় পেছন থেকে ঐ দুই যুবক গৃহবধূর মুখে চাপা দিয়ে পাশের বাগানে নিয়ে হাত-পা বেঁধে পালাক্রমে ধর্ষণ করে এবং মোবাইলে ভিডিও ধারন করে রাখে। ধর্ষণের পর এর ভিডিও ধারন করেই ক্ষান্ত হয়নি ধর্ষকরা। বিষয়টি গোপন রাখার জন্য ধর্ষক বিভিন্ন ভাবে অর্থ ও পুনরায় ধর্ষণের জন্য বিভিন্ন ভাবে চাপের মুখে রাখে ওই গৃহবধূকে ধর্ষকদের সম্পর্কে চাচীকে। এ ঘটনায় গৃহবধূর পরিবার জানলে র‍্যাবকে জানানো হলে র‍্যাবের ১১ সিপিসি কুমিল্লা-২ এর টহল সি সি নং ৩০৩/২০ এর সদস্যরা প্রথমে ফরিদগঞ্জের পৌর এলাকার ভাটির গাঁও থেকে ১নং আসমী হারুন খানের ছেলে ধর্ষক জহিরুল ইসলাম (নুরু) কে তার ব্যাবহারিত মোবাইফোনসহ ১৫ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার সকাল ৬.৩০ মিনিটের সময় আটক করে ও ২নং আসামীকে কুমিল্লা জেলার পদুয়া বাজার বাসস্ট্যান্ডের বাস কাউন্টার থেকে বিকাল ৪টার সময় আবুল কালামের ছেলে ধর্ষক আব্দুর রহমামন (রাজিব) কে একটি স্যামসাং মোবাইল ফোনসহ আটক করে র‍্যাব। দুই ধর্ষককে ফরিদগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করে র‍্যাব।