মঙ্গলবার,১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ম্যারাডোনার চিকিৎসার বিষয়ে তদন্ত শুরু, চিকিৎসকের ক্লিনিকে তল্লাশি

মুক্তখবর :
নভেম্বর ৩০, ২০২০
news-image

ঢাকা, সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০ (স্পোর্টস ডেস্ক): ফুটবল ঈশ্বর ম্যারাডোনার চিকিৎসায় কোনও গাফিলতি ছিল কিনা সে বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে আর্জেন্টিনার বিচার বিভাগের কর্মকর্তারা। এ জন্য লুকের ব্যক্তিগত সম্পত্তি অনুসন্ধানেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়াও তল্লাশি চালানো হয়েছে লুকের বাসা, অফিস ও ক্লিনিক। ফুটবল ঈশ্বর দিয়েগো ম্যরাডোনা চলে গেছেন পরপারে। বাবা-মার কবরের পাশে ঘুমাচ্ছেন আর্জেন্টাইন ফুটবলের রাজপুত্র। কঠিন এই সত্য মেনে নিলেও তার এই হঠাৎ মৃত্যু এখনও যন্ত্রণায় পোড়াচ্ছে আর্জেন্টিনাসহ পুরো দুনিয়ার ফুটবলপ্রেমীদের। উঠছে নানা অভিযোগ। ম্যারাডোনার আইনজীবী মাতিয়াস অভিযোগ করে বলেছেন মৃত্যুর ১২ ঘণ্টা আগে কোনও স্বাস্থ্যকর্মী ছিলে না ম্যারাডোনার পাশে। অ্যাম্বুলেন্সও এসেছে আধা ঘণ্টা দেরিতে। এমন অসংখ্য অভিযোগ ডালপালা মেলছে। আর সব অভিযোগের তীর গিয়ে ঠেকেছে ব্যক্তিগত চিকিৎসক লিওপোলদো লুকের দিকে। ম্যারাডোনার দুই মেয়ে তাদের বাবার চিকিৎসায় কোনো অবহেলা হয়েছে কি না তা জানতে চেয়েছে। তাইতো এই মহাতারকার মৃত্যুর তদন্ত শুরু করেছে দেশটির বিচার বিভাগ। বুয়েন্স আয়ার্সের সান ইসিদ্রোর প্রসিকিউটররা এই অনুসন্ধানের জন্য অনুরোধ করেছেন। এরই মধ্যে চিকিৎসক লিওপোলদো লুকের ক্লিনিক, বাসা ও অফিসে তল্লাশি চালিয়েছে পুলিশ। তার ব্যক্তিগত সম্পত্তি অনুসন্ধানের নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। তবে নিজের ওপর আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন লিওপোলদো লুক। জানিয়েছেন তিনি নিরপরাধ। চিকিৎসক লিওপোলদো লুক বলেন, ম্যারাডোনাকে আমরা অনেক ভালোবাসি। তারমত মানুষের চিকিৎসা করতে পেরে বরং আমি গর্বিত। সেখানে অবহেলার কোনও প্রশ্নই আসে না। আমি তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেছি। অথচ আমাকেই সন্দেহ করা হচ্ছে। আমি নিরপরাধ। আমার যতটুকু দায়িত্ব ছিলো তা যথাযথভাবে আমি পালন করেছি। হৃদরোগে আক্রান্ত যে কোনও রুগীর ক্ষেত্রেই এমন মৃত্যু হতে পারে। তদন্তে সব ধরনের সহায়তা করা হবে বলেও জানিয়েছেন লিওপোলদো লুক।