বুধবার,২৭শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

প্রেমিকের আত্মহত্যার ৩ দিন পর প্রেমিকার আত্মহত্যা

মুক্তখবর :
ডিসেম্বর ৩, ২০২০
news-image

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০ (নিজস্ব প্রতিনিধি): ‘গুড বাই’ বলে প্রেমিকার কাছ থেকে বিদায় নিয়ে গাছের সঙ্গে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেন প্রেমিক সুমন হালদার। সেই কষ্ট সইতে না পেয়ে তিন দিনের মাথায় প্রেমিকা মিনা আক্তারও গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কাতলামারি গ্রামে। স্থানীয়রা জানায়, সদর উপজেলার কাতলামারী গ্রামে কসমেটিক্সের দোকান ছিল ওই গ্রামের কৃষ্ণপদ বিশ্বাসের ছেলে সুমন বিশ্বাসের।দোকানে আসা যাওয়ার কারণে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে একই গ্রামের মকবুল হোসেনের মেয়ে মিনা আক্তারের। গেলো মে মাস থেকে তাদের এই সম্পর্ক শুরু হয়। দিন যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে গভীর হয় সম্পর্ক। মিনার পরিবারের লোকজন বিষয়টি টের পেয়ে চাপ দিতে শুরু করে।গেলো ৩০ নভেম্বর রাতে দোকান বন্ধ করে মিনা আক্তারের সঙ্গে দেখা করতে যায় সুমন। কথা বলার একপর্যায়ে উভয়ের মধ্যে মান-অভিমান হয়। ‘গুড বাই’ বলে মিনার ওড়না নিয়ে চলে যায় সুমন। সেখান থেকে বাড়ির পাশের একটি গাছের সঙ্গে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে সুমন। মিনা টের পেয়ে পরিবারের লোকজন নিয়ে তাকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। সুমন মারা যাওয়ার পর বিষয়টি মেনে নিতে পারেনি মিনা। বিমর্ষ হয়ে পড়ে সে। অবশেষে নিজ ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস নিয়ে সেও আত্মহত্যা করে। ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল বাশার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সুমনের মরদেহ ময়নাতদন্ত করা হয়েছে।মিনার মরদেহ ময়নাতদন্ত করা হবে। পুলিশের পক্ষ থেকে মিনার পরিবারকে বলা হয়েছিল তাকে দেখাশোনা করার জন্য।