শনিবার,২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

আপেল সাইডার ভিনেগার যাদের জন্য বিপজ্জনক

মুক্তখবর :
জানুয়ারি ১২, ২০২১
news-image

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১২ জানুয়ারি ২০২১ (স্বাস্থ্য ডেস্ক): দ্রুত ওজন কমাতে আপেল সাইডার ভিনেগার পানের বিকল্প নেই। ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপসহ দীর্ঘমেয়াদি নানা সমস্যার সমাধান রয়েছে ভিনেগারে। জানেন কি? দীর্ঘদিন ধরে অতিরিক্ত আপেল সাইডার ভিনেগার পান করলে শারীরিক নানা সমস্যা হতে পারে। ত্বকে পোড়াভাব, দাঁত ক্ষয়, পাকস্থলির সমস্যাসহ হাইপোগ্লাইসেমিয়ার ঝুঁকি বাড়ায় আপেল সাইডার ভিনেগার। এ ছাড়াও রয়েছে কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক-

>> আপেল সাইডার ভিনেগার অ্যাসিডযুক্ত পানীয়। অতিরিক্ত অ্যাসিডিক খাবার দাঁতের এনামেলকে দুর্বল করে, এতে দাঁত ক্ষয় হতে থাকে। ডেন্টাল অ্যান্ড ক্রানিয়োফেসিয়াল রিসার্চে জানানো হয়, নিয়মিত আপেল সাইডার ভিনেগার পান করলে দাঁতের এনামেল ক্ষতিগ্রস্ত হয়, পাশাপাশি মিষ্টি ও অধিক ঠান্ডা খাবার খাওয়ায় দাঁতের মাঝে গর্ত হয়ে যায়। পরবর্তীতে তা ফিলিং করার প্রয়োজন পড়ে। এ ছাড়াও অতিরিক্ত আপেল সাইডার ভিনেগার পান করলে জিহ্বায় ক্ষত হতে পারে।

>> বোস্টনের হার্ভার্ড মেডিসিন স্কুলের সহযোগী অধ্যাপক ড. রবার্ট এইচ শর্মলিংয়ের মতে, আপেল সাইডার ভিনেগার শরীরের পটাশিয়ামের মাত্রা কমিয়ে ফেলে। শরীরের পটাসিয়াম লেভেল কমে গেলে হয় হাইকোক্লেমিয়া। দীর্ঘদিন এ সমস্যায় ভুগলে পেশী দুর্বল হয় এবং পক্ষাঘাত হতে পারে। যদি কোনো ব্যক্তি পেশীর সমস্যা বা শ্বাসকষ্ট অনুভব করেন তবে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

>> অপরিশোধিত আপেল সাইডার ভিনেগার পান করলে হজমজনিত সমস্যা হতে পারে। যার ফলে পরবর্তীতে আলসারের ঝুঁকি বাড়ে। অনেকেই খাবারের পর আপেল সাইডার ভিনেগার পান করতে গিয়ে বমি ও বদহজমের শিকার হয়েছেন বলে এক গবেষণায় জানা যায়। তাই অবশ্যই খাওয়ার অন্তত আধা ঘণ্টা আগে ভিনেগার পান করুন।