বুধবার,২৭শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ভয়াবহ আগুন, প্রায় পাঁচশ ঘর পুড়ে ছাই

মুক্তখবর :
জানুয়ারি ১৪, ২০২১
news-image

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারি ২০২১ (নিজস্ব প্রতিনিধি): টেকনাফের নয়াপাড়া-মোছনী নিবন্ধিত শরণার্থী ক্যাম্পে ভয়াবহ আগুনে প্রায় পাঁচ শতাধিক ঘরবাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এ ঘটনায় ১৫ থেকে ২০ জন নারী-পুরুষ আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।বুধবার (১৪ জানুয়ারি) গভীর রাতে টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের নয়াপাড়া নিবন্ধিত শরণার্থী ক্যাম্পে অগ্নিকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটেছে। মুহূর্তে আগুনের লেলিহান চারদিকে ছড়িয়ে পড়ায় ঘর হতে কোনও পরিবার মালামাল বের করতে পারেনি। আগুনের উৎস কোথা থেকে তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন, ই-ব্লকের একটি বাড়ির গ্যাসের চুলা থেকে এ আগুনের সূত্রপাত হয়ে মুহূর্তে চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে টেকনাফ-উখিয়ার ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে প্রায় দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। টেকনাফ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মুকুল কুমার নাথ বলেন, দুইটার দিকে খবর পেয়ে উখিয়া টেকনাফের দুইটি ইউনিট প্রায় দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসা হয়। তিনি বলেন, আগুনের সূত্রপাত এখনো সঠিক নির্ণয় করা যায়নি। তবে কেউ কেউ গ্যাসের চুলা থেকে এই ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জেনেছি। টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম জানিয়েছেন, ৩টার দিকে হঠাৎ এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার সূত্রপাত ঘটে। এতে ৮৩টি শেল্টারের অধীনে প্রায় ৫৫০টি ছোট ছোট ঘর পুড়ে যায়। সাড়ে ৪টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের দল আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তিনি ধারণা করেছেন রান্না ঘরের গ্যাস সিলিন্ডার থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ও খাবার বিতরণ করা হচ্ছে।